২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
জাপার প্রেসিডিয়ামের সভা 

জি এম কাদেরকে বিরোধী দলের নেতা করার দাবি

জি এম কাদের
জি এম কাদের - ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরকে সংসদে বিরোধীদলের নেতা মনোনীত করার প্রস্তাব তুলেছেন দলের কয়েকজন প্রেসিডিয়াম সদস্য। দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পার্টির চেয়ারম্যানই সর্বেসর্বা। তিনি পার্টিতে যেকোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতার অধিকারী। ফলে তারই বিরোধী দলের নেতা হওয়া উচিত বলে তারা মনে করেন। 

এ দিকে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ মরহুম এরশাদের চেহলাম (চল্লিশা) উপলক্ষে আগামী ৩১ আগস্ট সারা দেশে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। ২৩ আগস্ট মরহুম এরশাদের চল্লিশ দিন পূর্ণ হলেও সেদিন হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্মাষ্টমী হওয়ায় ৩১ আগস্ট সারা দেশে দোয়া মাহফিল, আলোচনা সভা ও দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হবে। এ জন্য পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও দলের সংসদ সদস্যদের এক লাখ টাকা করে পার্টির ফান্ডে জমা দিতে বলা হয়েছে। 
গতকাল শনিবার জাপার বনানী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ যৌথসভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভা বেলা ১১টায় শুরু হয়ে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলে। পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের এমপির সভাপতিত্বে সভায় পার্টির মহাসচিব বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপিসহ ৩৫জন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও দলীয় সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় উপস্থিত একাদিক নেতার সাথে কথা বলে জানা গেছে, সভায় এরশাদের চল্লিশা পালন ও বিরোধীদলের নেতা নির্বাচন প্রসঙ্গ নিয়ে মূল আলোচনা হয়েছে। বেশ কয়েকজন প্রেসিডিয়াম সদস্য পার্টির গঠনতন্ত্র মোতাবেক জি এম কাদেরকে সংসদের বিরোধী দলের নেতা মনোনীত করার প্রস্তাব করেছেন। এ ছাড়া এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সভা সূত্র জানায়, পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান টেপা বলেন, এরশাদের চেহলাম কেন্দ্রীয়ভাবে রংপুরে করা উচিত। যেহেতু তাকে সেখানে দাফন করা হয়েছে। তা ছাড়া পার্টির গঠনতন্ত্র মোতাবেক পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরকেই বিরোধীদলের নেতা বানানো প্রয়োজন। প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম বলেন, পার্টির সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। পার্টির গঠনতন্ত্র বিধান মোতাবেক পার্টির চেয়ারম্যান যেকোনো বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে চেয়ারম্যান চাইলে বিরোধীদলের নেতাও হতে পারেন। প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন বলেন, জি এম কাদেরকে বিরোধীদলের নেতা বানানো উচিত। কারণ, তার সাথে পার্টির তৃণমূলের সম্পর্ক রয়েছে। আর পার্টির চেয়ারম্যান বিরোধীদলের নেতা হবেন- এটাই তো স্বাভাবিক।
প্রেসিডিয়াম সদস্য এ টি ইউ তাজ রহমান বলেন, পার্টির গঠনতন্ত্র মোতাবেক দল পরিচালনা করতে হবে। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সর্বসম্মতিক্রমে বিরোধীদলের নেতা নির্বাচন করতে হবে। জাপার আরেক প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী মামুনুর রশিদ বলেন, পার্টির গতিধারা অব্যাহত রাখতে জি এম কাদেরকে সংসদের বিরোধীদলের নেতা বানানো দরকার। উনি এ দায়িত্ব গ্রহণ করুক এটা নেতাকর্মী ও দেশবাসীর প্রত্যাশা।

তবে জি এম কাদেরকে সংসদের বিরোধী দলের নেতা মনোনয়নের প্রস্তাবের বিপক্ষেও অনেকে মত দিয়ে বলেছেন, দলকে ঐক্যবদ্ধ রাখতে হলে ক্ষমতার ভারসাম্য দরকার। এরশাদ পরিবারের এই সিনিয়র দু’নেতা মিলে-মিশে দল চালালে কোন দ্বন্দ্ব-বিভেদ থাকবে না। আর দলও শক্তিশালী হবে। তারা বলেন, যারা জি এম কাদেরকে বিরোধী দলের নেতা বানানোর প্রস্তাব করছেন তাদের কেউই সংসদ সদস্য নন। ফলে তারা জি এম কাদেরকে ‘তেল’ দেয়ার জন্যই এ মুহূর্তে এ প্রস্তাব তুলেছেন যা দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে। 

তবে সভায় জি এম কাদের বলেছেন, বিরোধীদলের নেতা কে হবেন সে বিষয়ে সবার সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্তু নেয়া হবে। যাতে করে পার্টিতে কোনো বিভেদ সৃষ্টি না হয়। আগামী ৩১ আগস্ট সারা দেশে এরশাদের জন্য দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে বলে তিনি জানান। রংপুরের উপনির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উপ নির্বাচনে রংপুরের স্থানীয় নেতাদের কাছ থেকে প্রার্থী হিসেবে চারজনের নাম চাওয়া হবে। সেটার উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, গঠনতন্ত্র মোতাবেক পার্টির চেয়ারম্যানকে সুপ্রিম পাওয়ার দেয়া আছে। বিরোধী দলীয় নেতা এবং রংপুর-৩ আসনে প্রার্থী নির্ধারণ দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী হবে। সবার সাথে আলোচনা করে বিরোধীদলের নেতা ও রংপুর-৩ আসনে প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হবে। 
রাঙ্গা বলেন, অসাধু ব্যবসায়ীরা চামড়া নিয়ে যা করেছে তা দুরভিসন্ধিমূলক। বিক্রেতাদের কম মূল্য দিতেই এমন অবস্থা সৃষ্টি করা হয়েছে। চামড়া নিয়ে যারা কারসাজি করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে ও মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিতে তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat Paykasa buy Instagram likes Paykwik Hesaplı Krediler Hızlı Krediler paykwik bozdurma tubidy