১৪ অক্টোবর ২০১৯

মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুরসির মৃত্যুতে জামায়াতের শোক

-

মিসরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট ড. মোহাম্মদ মুরসি দেশের একটি আদালতের এজলাসে শুনানি চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকালের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমাদ এবং সেক্রেটারী জেনারেল ডাঃ শফিকুর রহমান। মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা এই শোক প্রকাশ করেন।

যুক্ত শোকবাণীতে তারা বলেন,‘মিসরের ইতিহাসে প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সাবেক জনপ্রিয় প্রেসিডেন্ট ড. মোহাম্মদ মুরসি দেশের একটি আদালতের এজলাসে আকস্মিকভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করার ঘটনায় আমরা গভীরভাবে শোকাহত ও মর্মাহত। তার ইন্তেকালে আমরা একজন স্বজন হারানোর গভীর বেদনা অনুভব করছি।’

তারা আরো বলেন, ড. মুরসির ইন্তেকালে গোটা মুসলিম উম্মাহ গভীরভাবে শোকাভিভূত ও মর্মাহত। মিসরের অত্যন্ত জনপ্রিয় প্রেসিডেন্ট ড. মুরসিকে ২০১৩ সালে জেনারেল আব্দুল ফাত্তাহ আল-সিসি অবৈধভাবে সামরিক অভ্যুত্থান ঘটিয়ে ক্ষমতাচ্যুত করেন। অন্যায়ভাবে ক্ষমতাচ্যুত করার পর তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করে প্রায় ৬টি বছর অবৈধভাবে কারাগারে আটক রেখে তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হয়।

সেই থেকেই মিসরের জনগণ ও মুসলিম ব্রাদারহুডের নেতা-কর্মীদের উপর চলছে হত্যা, জুলুম-নির্যাতন। এছাড়া মুসলিম ব্রাদারহুডের হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। জেনারেল সিসি মিসর থেকে গণতন্ত্র, আইনের শাসন, জনগণের ভোটাধিকার হরণ ও ন্যায়বিচার নির্বাসনে পাঠিয়ে গোটা দেশকে একটি বৃহৎ কারাগারে পরিণত করেছেন।

সেখানে কারো জানমালের কোনো নিরাপত্তা নেই। জেনারেল সিসির সরকারের চরম জুলুম ও নির্যাতনের শিকার হয়ে ড. মুরসি বিনা চিকিৎসায় আদালতের এজলাসে ইন্তেকাল করেছেন। এ ঘটনা মিসর সরকারের জুলুম-নির্যাতনের জ্বলন্ত উদাহরণ।

ইসলামী আদর্শ ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় তার এ আত্মত্যাগ সারা বিশ্বের মুসলিম উম্মাহ ও সকল মুক্তিকামী জনতা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। ড. মুরসির জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে আল্লাহ তাকে জান্নাতুল ফেরদাউসে উচ্চ মর্যাদা দান করুন। আমরা তার শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজন, দলীয় সহকর্মী ও মিসরের শোক সন্তপ্ত জনগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে দোয়া করছি আল্লাহ তাদের এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum