২০ নভেম্বর ২০১৯

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে মৎস্যজীবী দলের বিক্ষোভ

-

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দল।

আজ সোমবার সকালে একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়া পল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারো বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মিছিলে অংশ নেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাব, সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন খান, ফরিদ আহমেদ মানিক, কবির উদ্দিন মাষ্টার, তারিকুল ইসলাম মধু, জহিরুল ইসলাম বাশার, এ কে এম ওয়াজেদ, সাইদুল ইসলাম টুলু, সাইফুল ইসলাম রাশেদ, এম এ হান্নান, সদস্য হেমায়েত উদ্দিন হিমু, শরীফুল ইসলাম রিপন, শাহীন উদ্দিন স্বপন প্রমুখ।

মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, একদিকে মধ্যরাতে ভোট চুরির মাধ্যমে জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল ও ভয়াবহ দুঃশাসনে দেশের জনগণ যেমন ফুঁসছে, তেমনি অন্যদিকে দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী সম্পূর্ণ নির্দোষ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে কারাবন্দী এবং চিকিৎসা না দিয়ে তাকে নিঃশেষ করে দেয়ার জন্য সরকারের গভীর ষড়যন্ত্রে জনগণ প্রচণ্ড বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে।

তিনি বলেন, সরকারপ্রধান এখন সেরা ডিক্টেটর হিসেবে সারা দুনিয়ায় পরিচিতি লাভ করেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনযন্ত্রকে কব্জায় নিয়ে তিনি এক ব্যক্তির ইচ্ছা-অনিচ্ছার শাসন বলবৎ করেছেন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের জনগণ যাতে বর্তমান অবৈধ সরকারের এই জুলুমের শাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে না পারে সেজন্য গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের আপসহীন নেত্রী বেগম জিয়াকে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের ১০ মাস আগেই মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারান্তরীণ করা হয়েছে।

রিজভী আরো বলেন, মধ্যরাতের ভোটের সরকার বলেই বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারকে মাটিচাপা দিয়ে বিএনপিসহ সকল বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে একদলীয় বাকশালী শাসন প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু জনগণ আওয়ামী শাসকগোষ্ঠীর এই স্বপ্ন কোনোদিনই বাস্তবায়িত হতে দেবে না। দেশের আপামর জনগণের আস্থাভাজন নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করে মানুষের মৌলিক মানবাধিকার ও গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে জাতীয়তাবাদী শক্তি দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ।


আরো সংবাদ