১৮ জুন ২০১৯

যেভাবে চলছে জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগ

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগ - সংগৃহীত

জাতীয় কাউন্সিল ঠিকমতো হলেও নজর নেই জেলা-উপজেলা কিংবা থানা-ইউনিয়নে। আওয়ামী লীগের বেশির ভাগ জেলা-উপজেলা ও থানা-ইউনিয়ন কমিটির মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে বেশ আগেই। অনেক থানা-উপজেলা কিংবা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটি সর্বশেষ কবে হয়েছে তাও ভুলতে বসেছেন খোদ ওই কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের কেউ কেউ। এ বছরের অক্টোবরে আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কেন্দ্র থেকে তৃণমূলে কোনো নির্দেশনা পৌঁছেনি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী জেলা-উপজেলা এবং থানা ও ইউনিয়ন কমিটির মেয়াদ তিন বছর। ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে দলের কাউন্সিলররা তাদের নেতা নির্বাচিত করবেন। কিন্তু অনেক জেলায় কমিটির মেয়াদ তিন বছরের জায়গায় চার-পাঁচ বছর কিংবা এরও বেশি হয়ে গেছে। অনেক থানা-উপজেলা ও ইউনিয়নে ৭-৮ বছর কিংবা তারও বেশি আগে কমিটি হলেও নতুন সম্মেলনের কোনো খবর নেই। পুরোনো কমিটি দিয়ে ঢিমেতালে চলছে দলের কার্যক্রম। ফলে গতিহীন হয়ে পড়ছে তৃণমূল, উঠে আসছে না নতুন নেতৃত্ব। 

টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলীর সাথে গতকাল আলাপকালে তিনি জানান, ২০১৩ সালের মার্চ-এপ্রিলের দিকে সম্মেলন হয়েছে। কক্সবাজার জেলা কমিটির সম্মেলন উপজেলার কিছুদিন পরেই অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সামনে কবে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে এ বিষয়ে কোনো নির্দেশনা আসেনি। এক প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ আলী বলেন, শুনেছি আগামী অক্টোবরে জাতীয় কাউন্সিল হবে। এ বিষয়ে কেন্দ্র থেকে কোনো নির্দেশনা এখনো পাইনি। কথা হয় বাগেরহাটের স্মরণখোলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামালউদ্দিন আকনের সাথে। উপজেলার সর্বশেষ সম্মেলন কবে হয়েছে তিনি মনে করতে পারেননি। তবে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, ৭-৮ বছর আগে উপজেলার সম্মেলন হয়েছে। আর জেলার সম্মেলন হয়েছে তিন-চার বছর হবে। এক প্রশ্নের জবাবে কামালউদ্দিন আকন জানান, পত্রিকায় দেখেছি অক্টোবরে জাতীয় কাউন্সিল হবে। কিন্তু কেন্দ্র থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো নির্দেশনা আসেনি। 

উপজেলার সম্মেলন প্রসঙ্গে যশোরের মনিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান নয়া দিগন্তকে বলেন, ২০১৪ সালের ২৮ নভেম্বর সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছে। এর কিছুদিন পরে ২০১৫ সালে জেলা কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। শুনেছি অক্টোবরে কেন্দ্রের সম্মেলন হবে। কিন্তু আমাদের সম্মেলন অনুষ্ঠানের ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আর কেন্দ্রের সম্মেলন অনুষ্ঠানের বিষয়ে কেন্দ্র থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো নির্দেশনা আসেনি। নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলারও কমিটির মেয়াদ বেশ আগেই উত্তীর্ণ হয়ে গেছে বলে জানান জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশে সব সময় কাজ করি। কিন্তু আমরা কোনো মূল্যায়ন পাই না। যারা নৌকার বিপক্ষে কাজ করে তাদের কদর সব সময় বেশি থাকে।

দলীয় সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের ৭৭টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে বেশির ভাগের মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে। চাঁদপুর, কুমিল্লা দক্ষিণ, নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, শরিয়তপুর ও গাইবান্ধাসহ কিছু জেলা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে গত মার্চ, ফেব্রুয়ারি ও জানুয়ারিতে। আর বান্দরবান, রাঙ্গামাটি, নোয়াখালী, বাগেরহাট, কক্সবাজার ও মাগুরাসহ বেশকিছু জেলা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে গত বছর। কিছু জেলা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে তারও আগে। আর উপজেলা-থানা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে অনেক আগেই। এখন নতুন কমিটির অপেক্ষায় দিন কাটাচ্ছেন তরুণ নেতারা।

জেলা-উপজেলার নতুন সম্মেলন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক নয়া দিগন্তকে বলেন, আগামী অক্টোবরে আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। এর আগেই মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা-উপজেলা কমিটির সম্মেলন করার লক্ষ্যে কাজ চলছে। আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, কতগুলো জেলা-উপজেলার কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে এখনো নির্ণয় করা যায়নি। এগুলো নিয়ে এখনো কাজ চলছে। কেন্দ্রের সম্মেলনের আগেই মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলোর সম্মেলন শেষ করা হবে।


আরো সংবাদ

সাকিবকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় অস্ট্রেলিয়া আমরা সেমিফাইনাল খেলতে চাই : সাকিব ৮ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে মারা গেলেন মেধাবী ছাত্র রাজু মোবাইল চার্জ দিতে গিয়ে নারীর মর্মান্তিক মৃত্যু রোহিঙ্গাদের রক্ষায় পদ্ধতিগতভাবে ব্যর্থ হয়েছে জাতিসঙ্ঘ : পর্যালোচনা প্রতিবেদন গাজীপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী জয়ী, স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোট বর্জন সাইফউদ্দিন-মোস্তাফিজে ভারতকে পিছনে ফেলল বাংলাদেশ ভোটার শূন্য কেন্দ্রে জালভোটের মহোৎসব ঘাপটি মেরে বসে থাকলেও তাদের ষড়যন্ত্র থেমে নেই : নাসিম ওয়ানডে ক্রিকেটে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন মরগান ‘নেইমার না থাকলেও ব্রাজিলের কিছু হবে না’

সকল