২১ আগস্ট ২০১৯
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা প্রসঙ্গ

সরকারের শেখানো কথা বলছেন হাসপাতাল পরিচালক : রিজভী

বিএনপি
রুহুল কবির রিজভী - ফাইল ছবি

দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল পরিচালকের বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিএনপি।

আজ বুধবার সকালে এক মিলাদ মাহফিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই প্রশ্ন তুলে বলেন, দেশনেত্রী কারাগারে থাকতে সরকারি ডাক্তাররা যারা তাকে দেখতে গেছেন তারা বলেছেন উনার অসুস্থতা গুরুতর। আর তিনি (দেশনেত্রী) পিজিতে (বিএসএমএমইউ) আসার সাথে সাথেই হাসপাতালের পরিচালক বলে দিলেন যে উনি খুব একটা অসুস্থ নন। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হলো না, কোনো ধরনের ডায়াগনোসিস হলো না, অথচ পিজির পরিচালক বলে দিলেন যে উনি (খালেদা জিয়া) তেমন গুরুতর অসুস্থ নন। পরিচালক তো নিজের মুখে বলেছেন না। সরকার যেটা বলে দিচ্ছেন সেই কথাই পিজির পরিচালক বলছেন।

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, আজকে বেগম খালেদা জিয়ার কোনো উন্নত চিকিৎসা নেই। তার ফ্রোজেন শোল্ডার হয়ে যাচ্ছে, বাম হাত, ডান হাত নাড়াতে পারছেন না, হাঁটতে পারছেন না। যিনি সুস্থ অবস্থায় গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে হেঁটে হেঁটে কারাগারে গেলেন। আজকে তাকে হুইল চেয়ার ব্যবহার করতে হচ্ছে।

‘আজকে আমাদের কাছে ভয় হচ্ছে যে, সরকার কারাগারের মধ্যে তাকে (খালেদা জিয়া) চিকিসার নামে কিসের নামে অন্যকিছু করছেন কিনা? কোনো স্লো পয়েজেনিং করা হচ্ছে কিনা- এটা এখন জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। আজকে তিনি গুরুতর অসুস্থ হলেন কেনো?’, বলেন রিজভী।

বনানীর এফআর বিল্ডিংয়ের অগ্নিকাণ্ডের দিন ফায়ার সার্ভিসে পাইপের ছিদ্র পলিথিন দিয়ে যে শিশুটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছিলো সেই প্রসঙ্গ টেনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন, বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের সময় একটা বাচ্চা ছেলে মানবিক কাজ করেছে মানুষজনকে বাঁচাতে। তাকে অনেকে পুরস্কার দিয়েছে। সেই শিশুর মুখ দিয়ে বলানো হচ্ছে যে, তুমি বলো এতিমখানায় টাকাগুলো দিতে চাও। কেনো যে? ম্যাডামের কথা বলছে যে, উনি নাকী এতিমের টাকা নিয়েছেন। কিভাবে একটা শিশুকে মিথ্যা কথা বলা শিখানো হয়? শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত এই সরকার মিথ্যাবাদী বানাতে চাচ্ছে। কিন্তু আজকে দেখুন শুধু বাংলাদেশ নয়, গোটা বিশ্বের মানুষ এটাতে ফেঁসে উঠেছে। এই শিশুর মা-বাবা বলেছেন, যে টাকাটি যারা শিশুটিকে দিয়েছিলেন তারা বলছেন, যে শিশুকে দিয়ে মিথ্যা কথা বলানো হয়-আমরা টাকা দেবো না। এখন মা-বাবারা বলছেন, এই টাকা পেলে বাচ্চাটির স্কুলের খরচটা হতো, লেখা-পড়া শিখতো। তার মানে বাচ্চা দিয়ে এতিমখানায় টাকা দেয়ার কথাটা সরকার বলিয়েছে, সরকারের এজেন্সিগুলো বলিয়েছেন। তাহলে এই মিথ্যাচারের দেশে সাধারণ শিশুদেরও বাধ্য করা হচ্ছে মিথ্যা কথা বলার জন্য। এটা চলতে পারে না।’

পুলিশের ওসি থানার মধ্যে আদালত বসিয়ে বিচার করার বিষয়টি তুলে ধরে সরকার ও বিচার বিভাগের ভূমিকার কঠোর সমালোচনা করেন রিজভী।

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শবে মিরাজ উপলক্ষে বিএনপি এই মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে।

মিলাদপূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে উলামা দলের শাহ নেছারুল হক, নজরুল ইসলাম তালুকদার, কাজী আবুল হোসেন শবে মেরাজের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন।

মিলাদে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, হাসান জাফির তুহিনসহ নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।


আরো সংবাদ




bedava internet