২২ এপ্রিল ২০১৯

‘এ অবস্থায় নির্বাচনে গেলে শেখ হাসিনা আজীবন প্রধানমন্ত্রী থাকবেন’

‘এ অবস্থায় নির্বাচনে গেলে শেখ হাসিনা আজীবন প্রধানমন্ত্রী থাকবেন’ - সংগৃহীত

রাজশাহীর কেন্দ্রীয় মাদ্রাসা মাঠে চলছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভাগীয় সমাবেশ। সমাবেশে কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় নেতারা একে একে বক্তব্য দিচ্ছেন। বক্তরা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তীব্র আন্দোলনের ঘোষণা চান ঐক্যফ্রন্টের কাছে। 

শুক্রবার বিকেলে রাজশাহীর মাদরাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভাগীয় জনসভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, এখনও নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তেরী হয়নি। তার মধ্যেই বিরোধীদের দাবি উপেক্ষা করে সরকারি দলের ইচ্ছেতে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।  এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন হলে শেখ হাসিনা আজীবন প্রধানমন্ত্রী আর বেগম খালেদা জিয়া আজীবন কারাবন্দি থাকবেন। 

জনসভায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন ছাড়া অন্যান্য শীর্ষ নেতারা অংশ নিয়েছেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন হলে তারেক রহমানকে আজীবন নির্বাসিত থাকতে হবে। এই মঞ্চে যারা আছেন তাদের সাবেক বিচারপতি এস কে সিনহার মত হাতে কাগজ ধরিয়ে দিয়ে বিদেশে পাঠিয়ে দেবে সরকার।

তিনি আরও বলেন, আমরা গণতন্ত্রের পক্ষে। এখন গণতন্ত্র নেই দেশে। এই গণতন্ত্র উদ্ধার করতে হলে একটি অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে অবাধ নির্বাচন সম্ভব নয়।

গয়েশ্বর বলেন, বেগম জিয়াকে কারাগারে রেখে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাত দফায় বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই সাত দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে যাবে না। গণতন্ত্র উদ্ধারের যুদ্ধে দলমত র্নির্বিশেষে সবাইকে অংশ নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভাগীয় সমন্বয়কারী মিজানুর রহমান মিনুর সভাপতিত্বে জনসভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত-উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরীর এ্যানি, নির্বাহী সদস্য দেবাশীষ রায় মধু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত রয়েছেন।

 


আরো সংবাদ

ঈশ্বরগঞ্জে খেলতে গিয়ে ফাঁস লেগে শিশুর মৃত্যু শ্রীলঙ্কা হামলা সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য : বিস্ফোরণের আগে কী করছিল আত্মঘাতীরা! প্রেমিকের পরকীয়া : স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেয়ে তরুণীর কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিরাপত্তা বাহিনী সজাগ রয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজবাড়ীতে বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার শ্রীলঙ্কায় এবার মসজিদে হামলা ব্রুনাইয়ের সাথে বাংলাদেশের ৭টি চুক্তি স্বাক্ষর মানিকছড়ি বাজারে সিসি ক্যামেরা স্থাপনে সেনাবাহিনীর অনুদান শবেবরাতের নামাজের জন্য বেরিয়ে সহপাঠীদের হাতে খুন স্কুলছাত্র কলম্বিয়ায় ভূমিধসে ১৯ জনের প্রাণহানি উজিরপুরে লঞ্চচাপায় ডাব বিক্রেতার মৃত্যু : আটক ২

সকল




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al
hd film izle
gebze evden eve nakliyat