১৭ অক্টোবর ২০১৮

গ্রেফতার নিয়ে জামায়াতের বক্তব্য

গ্রেফতার নিয়ে জামায়াতের বক্তব্য - ছবি : সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গা জেলা জামায়াতে ইসলামীর আমির মো: আনোয়ারুল হক মালিক ও সেক্রেটারী রুহুল আমীন, পৌরসভা জামায়াতের আমির মাসুদ পারভেজ এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের জেলা সভাপতি মাহফুজুর রহমানসহ আটজনকে এবং নোয়াখালী জেলার চৌমুহনী পৌরসভা জামায়াতের আমির নাসিমুল গণি চৌধুরীকে পুলিশ গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটি।

জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমান বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলেন, সরকার একদলীয় স্বৈরশাসন পাকাপোক্ত করার যে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে তারই অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা ও নোয়াখালীর জামায়াত-শিবির নেতাদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জনসমর্থনহীন সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্যই সারা দেশে নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা শুরু করেছে। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নামে প্রহসনের নাটক করার উদ্দেশ্যেই এ গ্রেফতার অভিযান। এ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হচ্ছে, সরকার কোনোক্রমেই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে রাজী নয়। সরকার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে শক্তির জোরে টিকে থাকার ষড়যন্ত্র করছে। এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড় করার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। একইসাথে গ্রেফতার অভিযান বন্ধ করে চুয়াডাঙ্গাসহ সারা দেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার আহবান জানান জামায়াত সেক্রেটারি।

চ্যানেল আই অনলাইনের সংবাদের প্রতিবাদ: চ্যানেল আই অনলাইনে গত ১০ অক্টোবর বিকেল ৪টা ২৩ মিনিটে “একুশে আগস্ট : যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ পেলেন যারা” শিরোনামে প্রচারিত খবরের সাথে সাজাপ্রাপ্তদের যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছে তাতে জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমানের ছবি যুক্ত করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটি। জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারী অধ্যাপক মোঃ তাসনীম আলম এক বিবৃতিতে বলেন, “চ্যানেল আই অনলাইনে গত ১০ অক্টোবর বিকেল ৪টা ২৩ মি: ‘একুশে আগস্ট : যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ পেলেন যারা’ শিরোনামে প্রচারিত খবরের সাথে সাজা প্রাপ্তদের যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছে তাতে জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমানের ছবি যুক্ত করার ঘটনায় আমরা বিস্মিত হয়েছি। এ ঘটনার মাধ্যমে চ্যানেল আই অনলাইন কর্তৃপক্ষের চরম দায়িত্বহীনতাই প্রমাণিত হয়েছে। ডা: শফিকুর রহমানের সাথে ঐ মামলার দূরতম কোন সম্পর্কও নেই। অথচ কোনো বাছ-বিচার না করেই তার ছবিটি অন্যায়ভাবে প্রকাশ করা হলো। এ বেআইনী কাজ তারা কিভাবে করলেন তা আমাদের বুঝে আসে না। এ থেকে বুঝা যাচ্ছে যে, তাদের মাথায় এ চিন্তা ঢুকেছে যে, যেকোনোভাবেই হোক জামায়াতে ইসলামীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাতেই হবে- এ চিন্তা থেকেই হয়ত তারা এ বেআইনী কাজটি করেছেন। আমি আশা করি চ্যানেল আই অনলাইন কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার জন্য ক্ষমা চাইবেন এবং সংশোধনী দিবেন। অন্যথায় আমরা আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো।”

শোক : বাহরাইনের রাজধানী মানামাতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভবন ধসে চারজন প্রবাসী বাংলাদেশী নিহত ও অন্তত ৩০ জন লোক আহত হওয়ার ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির মকবুল আহমাদ। এক বিবৃতিতে তিনি নিহতদের রূহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাদের শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজন ও আহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।
বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ