২৬ এপ্রিল ২০১৯

অক্টোবরের মাঝামাঝি নির্বাচনকালীন সরকার : ওবায়দুল কাদের

ওবায়দুল কাদের
মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে ওবায়দুল কাদের। - ছবি: সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এবারও নির্বাচনকালীন সরকারের আকার গতবারের কাছাকাছি হবে। আর আগামী মাসের মাঝামাঝি এই সরকার গঠন হতে পারে।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। সাম্প্রতিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে এই প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ হয়েছে। নির্বাচনকালীন সরকারে টেকনোক্র্যাট কেউ থাকবেন না। সরকারের আকারটা ছোট হবে।

ওবায়দুল কাদের জানান, জাতীয় পার্টি তাদের আরও দু-একজনকে এই সরকারে অন্তর্ভুক্ত করতে অনুরোধ জানিয়েছে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী বিবেচনা করবেন।

জোটগতভাবে নির্বাচন করলে শরিকদের জন্য ৬৫ থেকে ৭০টি আসন ছেড়ে দেওয়া হবে বলেও জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

১০০ জনের তালিকা করা হয়েছে বলে যে কথা শোনা যাচ্ছে, সে প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এমন কোনো তালিকা যদি হয়ও, তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া আর কেউ জানেন না।

আরেক প্রশ্নে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নির্বাচনে না এলে জাতীয় পার্টি আলাদাভাবে নির্বাচন করবে বলে তারাই ঘোষণা দিয়েছে। মেরুকরণ যেভাবে হবে, জোটের সমীকরণ সেভাবেই হবে।

খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপি রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার দরকার উন্নতমানের চিকিৎসা। উন্নত চিকিৎসার জন্য যে হাসপাতালে চিকিৎসা সম্ভব, সেখানে যেত আপত্তি কোথায়? আসলে বিএনপি খালেদা জিয়ার চেয়ে তার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করছে। এটাকে ইস্যু বানিয়ে আন্দোলন করতে চাইছে।’

 

আরো পড়ুন: মিডিয়ার একটি অংশ সরকার উৎখাতের চেষ্টা চালাচ্ছে : কাদে

মো: জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী), ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মিডিয়ার একটি অংশ সরকার উৎখাতের চেষ্টা চালাচ্ছে। আমাদের কাছে খবর আছে বিএনপি দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে, তাদের দোসরদের নিয়ে তারা ছক তৈরি করছে নির্বাচন বানচাল করার জন্য। ১০ মিনিটের জন্য বিএনপি আন্দোলন করতে পারে নাই। আন্দোলনের নামে দলীয় অফিসে বসে প্রেস বিফ্রিং করে। পুলিশের কাছে মোবাইল করে খবর নেয় দলীয় অফিসে পুলিশ অভিযান চালাবে সে ভয়ে বিএনপি আতঙ্কিত।

উত্তরবঙ্গের ট্রেন যাত্রা শেষে সৈয়দপুরে বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জে আজ রোববার সকালে সাংবাদিকদের সাথে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে নির্বাচন সিডিউল মোতাবেক অনুষ্ঠিত হবে। অক্টোবর মাসে পদ্মা সেতু চালু করার সম্ভাবনা রয়েছে। রেল ও রোড সংযোগ করা হবে অক্টোবর মাসে। আমাদের প্রতিপক্ষ বিএনপি কিছু অস্থিতিশীল অবস্থার সৃষ্টি করে।

তিনি আরো বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের গুজবে কান ভারী করে আন্দোলনে নামানো হয়েছে। আওয়ামী লীগ যেমন সুশৃঙ্খল ভাবে সমাবেশ করে, বিএনপি’র যদি এরকম সমাবেশ হতো তাহলে বিশৃঙ্খলা হতো। নির্বাচন সামনে আমরা পার্টির মধ্যে কিছু কিছু এলাকায় অন্তঃকলহ রয়েছে। সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

ট্রেনে যাত্রীদের দুর্ভোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের এই ট্রেনযাত্রাকে স্বাগত জানিয়েছে যাত্রীরা। তারা এটাকে দুর্ভোগ হিসেবে দেখেনি। রাত ১১টা পর্যন্ত রেল স্টেশনে হাজার হাজার মানুষ এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছে।

এসময় তার সাথে ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ চৌধুরী, নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র দেওয়ান আহমেদ কামাল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক, রেলওয়ে শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখতার হোসেন বাদল, আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম সরকার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সমাজকল্যাণ বিষয়ক নাফিউল করিম নাফা প্রমুখ।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al
hd film izle
gebze evden eve nakliyat