২৪ এপ্রিল ২০১৯
খালেদা জিয়া ঠাণ্ড জ্বরে ভুগছেন

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ভিন্ন খাতে নেয়ার চক্রান্ত হচ্ছে : রিজভী

বিএনপি
রুহুল কবীর রিজভী - ফাইল ছবি

শিক্ষার্থীদের চলমান ন্যায্য আন্দোলনকে জনদৃষ্টি থেকে ভিন্ন দিকে ফেরাতে শিক্ষার্থীদের ছদ্মাবরণে ছাত্রলীগ-যুবলীগ গাড়ি ভাংচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ সবই ছাত্রলীগ করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। সেইসাথে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে ঠাণ্ডা ও জ্বরসহ নানা রোগে ভুগছেন বলে জানিয়েছে দলটি।

আজ শনিবার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে সাজানো মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করার পর তাকে সুচিকিৎসা না দেয়ায় প্রতিনিয়ত তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। গতকাল বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার স্বজনরা দেখা করেছেন। বেগম জিয়া এখনো গুরুতর অসুস্থ। পুরাতন, জ্বরাজীর্ণ, নোংরা, স্যাঁতস্যাঁতে মেঝেতে ইঁদুর তেলাপোকায় ভরা পরিত্যক্ত রুমে তাকে থাকতে হচ্ছে। যা তাকে নিয়ে সরকারের নিষ্ঠুর নির্যাতনের নানামুখী নির্যাতনের পদক্ষেপের একটি।

রিজভী বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বেগম জিয়ার ঠান্ডা জ্বর সারছেই না। তিনি নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হলেও তার ইচ্ছানুযায়ী চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে না। তাকে কষ্ট দিয়ে তিলে তিলে তার শারিরীক অবস্থা আরো খারাপের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তাকে চিকিৎসা না দিয়ে প্রতিহিংসারই বহিঃপ্রকাশ ঘটাচ্ছে সরকার প্রধান। গুরুতর অসুস্থ দেশনেত্রীকে চিকিৎসা না দিয়ে উল্টো শেখ হাসিনা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে নিষ্ঠুর রসিকতা করেই যাচ্ছেন। নিজের সন্তুষ্টি অনুযায়ী চিকিৎসা পাওয়া যেকোনো বন্দীর অধিকার। শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের দেশে দেশে যারা বন্দী বা রাজবন্দী আছে তাদের প্রতি সরকারগুলো কতটা মানবিক ব্যবহার করে। কিন্তু ভোটারবিহীন সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি যে আচরণ করছেন তা অমানবিকতারই বহিঃপ্রকাশ। আমি দলের পক্ষে আবারো বেগম খালেদা জিয়াকে তার পছন্দ অনুযায়ী ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করে সুচিকিৎসার দাবি জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে দেশনেত্রীর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।

সড়ক-মহাসড়কের বেহাল দশা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী প্রতিদিন গড়ে সড়কে নিহত হচ্ছে ২০ জন। গত সাড়ে তিন বছরে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেছে ২৫ হাজার মানুষ। আহত হয়েছেন ৬২ হাজার মানুষ। সড়কে দীর্ঘ মৃত্যুর-মিছিলের জন্য দায়ী সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং নৌমন্ত্রী শাজাহান খান ও সরকারের অনাচারমূলক নীতি। বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার নিরাপদের সড়কের জন্য কোনো নীতিমালা তৈরি করতে পারেননি। আপনারা নিশ্চয় ভুলে যাননি নৌমন্ত্রী শাহজাহান খানের ঘোষণা, সড়ক দুর্ঘটনা রোধের জন্য বিভিন্ন সংগঠন যখন আন্দোলন করছিলেন তিনি তখন আন্দোলনকারীদের উপর লেলিয়ে দিয়েছিলেন তার পোষা শ্রমিকদের। তখন তিনি বলেছিলেন রাস্তায় গরু ছাগল চিনতে পারলেই তাকে লাইসেন্স দেওয়া হবে। সরকারও তার দাবি মেনে নিয়ে শাজাহান খানের বাহিনীকে উৎসাহ দিয়েছিল।

কোমলমতি শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, গরু ছাগল বাঁচাতে গিয়ে আজ শিশু-কিশোরসহ সব বয়সী মানুষদের বাসের চাকার নিচে ঠেলে দিয়েছে শাহজাহান খানরা, থামেনি সড়কে মৃত্যুর মিছিল। গতকালও দেখছেন কিভাবে মগবাজারে বাস পিষে মারল এক যুবককে, টাঙ্গাইলে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীকে, ধামরাইয়ে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হলো আরও ৪ জন, এছাড়া কুমিল্লায় আরেক ছাত্রীসহ গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হলো আরো ১০ জন।

তিনি বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ওপর গতকালও হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। গতকাল ধানমন্ডিতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের সশস্ত্র ক্যাডাররা। সাংবাদিকরা হামলার দৃশ্য ধারণ করতে গেলে সশস্ত্র হামলা করা হয়েছে অনলাইন সংবাদমাধ্যম প্রিয়.কমের অফিসে। তাদের অফিসে ব্যাপক ভাংচুরও করেছে ছাত্রলীগ। এ সময় সাংবাদিকদের উপরও হামলা করা হয়। আমি এ হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং হামলাকারীদের শাস্তি দাবি করছি।

রিজভী বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে দমন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সেজন্য আজ রাজধানীর মোড়ে মোড়ে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনকে মনিটরিংয়ের নামে দাঁড় করিয়ে রাখা হবে বলে গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে। যদি আওয়ামী লীগ এ কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে তাহলে জনগণ ও অভিভাবকরা তাদের ক্ষমা করবে না, এর পরিণাম শুভ হবে না। ভোটারবিহীন সরকারকে শুধু জনগণই নয়, শিশু থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাথী পর্যন্ত সকল স্তরের শিক্ষার্থীরা বিশ্বাস করে না।

তিনি বলেন, বিদ্যার্থীরা যেন তাদেরকে নির্যাতনে বেঁধে রাখার শিকলকে চিনতে পেরেছে, অকাল মৃত্যুর দানবকে চিহ্নিত করতে পেরেছে বলেই তারা আজ নির্যাতনকারী সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে অবিচল, অকম্প, উদ্বেল আন্দোলনের মহাস্রোতে বইয়ে দিতে পেরেছে। দুর্নীতির দুষ্ট চক্রে গোটা দেশকে বন্দী করেছে এই ভোটারবিহীন সরকার। অদক্ষ ড্রাইভার, ত্রুটিপূর্ণ গাড়ি, বেহাল সড়ক, ভুয়া ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান, ত্রুটিপূর্ণ গাড়ীকে ফিটনেস সার্টিফিকেট প্রদান, এই সমস্ত অনাচারের জন্য দায়ী অবৈধ সরকার, বিশেষভাবে দায়ী সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং পরিবহন নেতা নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান। আর এই অব্যবস্থাপনার কারণেই পরিবহন সেক্টরে অরাজকতা চলছে। আর এজন্য কিশোর-কিশোরীদের সজীব প্রাণগুলি প্রতিনিয়ত বাসের চাপায় পিষ্ট হচ্ছে, আর মন্ত্রীরা হায়েনার হাসি হাসছেন। সমগ্র ঘটনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের ভবিষ্যৎ বিদ্যার্থীরা।

তিনি আরো বলেন, মন্ত্রীদের নির্দেশে আজকেও দেশব্যাপী গণপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কষ্ট দেয়া হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এই গণপরিবহন বন্ধ করেনি। মূলতঃ পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্যকারীদের হুকুমেই পরিবহন বন্ধ রাখা হয়েছে। আজকের আন্দোলনে বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে ছাত্রলীগ-যুবলীগ অশুভ উদ্দেশ্য নিয়ে অবস্থান করছে। সরকার সুদীর্ঘ বাহু বিস্তৃত করে শিশু-কিশোরদের আন্দোলনকে দমানোর এক মহাপ্রস্তুতি গ্রহণ করে চলেছে। তারপরও ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলন বেগবান। অত্যাচারী খড়গকৃপানকে ধুলোয় লুটিয়ে তারা বীরদর্পে এগিয়ে যাচ্ছে। শিশু-কিশোরদের এই অনবদ্য ভূমিকা ইতিহাসে এক সোনালী অধ্যায় হয়ে থাকবে। শিক্ষার্থীদের এই অভিনব প্রতিবাদ যেন অত্যাচারিত জনগণের অন্ত:রুদ্ধ ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ।

রিজভী জানান, শিক্ষার্থীদের চলমান ন্যায্য আন্দোলনকে জনদৃষ্টি থেকে ভিন্ন দিকে ফেরাতে শিক্ষার্থীদের ছদ্মাবরণে ছাত্রলীগ-যুবলীগ গাড়ী ভাংচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ সবই করছে ছাত্রলীগ। গতকাল মগবাজারে বাসচাপায় যুবক নিহতের ঘটনায় যে বাসে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে, সেটিও দাঁড়িয়ে থেকে করেছে ছাত্রলীগ। আজ ছাত্রলীগ জুরাইনে সাবেক এমপি সালাহউদ্দিনের সিএনজি পাম্পে হামলা চালিয়েছে। ছাত্রলীগের এই কাপুরুষোচিত হামলার ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি করছি। এছাড়া গতকাল চট্টগ্রাম মহিলা দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফাতেমা বাদশাকে এবং ঢাকার নবাবগঞ্জে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক পবন মাহমুদ, যুগ্ম সম্পাদক পল্লব হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি করছি।


আরো সংবাদ

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা মিলিশিয়াদের হত্যার তালিকায় এবার ওবামা-হিলারি আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা সেই বিলকিস বানুকে ৫০ লাখ রুপি ক্ষতিপূরণের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের বারাক ওবামাকে হত্যার জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল যারা হিন্দু নেতার ফাঁসির জন্য ভোট দিলো আফরাজুলের পরিবার বাদপড়া মন্ত্রী ও এমপিদের কদর বাড়ছে নারীদের জন্য পৃথক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গঠনে রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি পরিহার করুন : কওমি ফোরাম ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকের ক্ষতিপূরণ মানদণ্ড তৈরির আহ্বান শ্রমিক নিরাপত্তা ফোরামের কারাবন্দী আরমানের সংশ্লিষ্ট মামলার নথি তলব ও রুল জারি জবি শিল্পীদের রঙ তুলিতে যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ

সকল




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al
hd film izle
gebze evden eve nakliyat