১৮ আগস্ট ২০১৯

সংসারের মা পাল্টায়, বাসা ছেড়ে যায় না দুই বাবা

দুই পুরুষ ও এক স্ত্রী ঈগলের সংসার। ছবি: ইউএসএফডব্লিউএস রিফিউজি সিস্টেম-এর টুইটার হ্যান্ডেল থেকে নেওয়া -

পরিবার যে কোনও সমীকরণে, যে কোনও মাপে গড়ে উঠতে পারে। এক স্ত্রী ঈগলের সঙ্গে দুই পুরুষ ঈগলের ‘সংসার’ করার কাহিনি আরও একবার সেটা প্রমাণ করল।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আপার মিসিসিপি রিভার রিফিউজির দেখাশোনা করেন যারা, তারা জানিয়েছেন, এক বসন্তে ভেলর ১-এর (পুরুষ ঈগল) সঙ্গে ঘর বাঁধে হোপ (স্ত্রী ঈগল)। তবে অচিরেই প্রমাণ হয়ে যায় ভেলর ১ বাবা হিসেবে মোটেই ভাল নয়। তার দুটি মাত্র কাজ ছিল, ডিমে তা দেওয়া ও খাবার জোগাড় করা। কিন্তু সে দুটিও সে দায়িত্বের সঙ্গে পালন করত না। ফলে খাবার জোগাড়ের জন্য হোপকে শিকারে বেরোতে হত। এমন পরিস্থিতিতে এক দিন তাদের সংসারে আর এক পুরুষ ঈগল ভেলর ২-এর আগমন ঘটে।

ভেলর ১ কী ভাবছে বা কী করছে তা নিয়ে সত্যিই কোনও মাথাব্যথা ছিল না হোপের। তবে ২০১৬ থেকেই তারা তিন জনে এক সাথে থাকতে শুরু করে। এমনকি ভেলর ১ এর পর থেকে কিছুটা দায়িত্ববানের মতো আচরণ করে। সে খাবার জোগাড় করতে যেত। মনে হয় ভেলর ২-এর উপস্থিতি তার মধ্যে সেই দায়িত্ববোধ বাড়িয়ে তুলেছিল।

বেশ চলছিল সংসার। কিন্তু সুখের সেই সংসার বেশি দিন স্থায়ী হল না। একদিন এই সংসারে দুই বহিরাগত পুরুষ ঈগল আক্রমণ করে। লড়াই চলে প্রায় এক ঘণ্টা। সংসারের দুই পুরুষ ঈগল মাটি কামড়ে লড়াই চালিয়ে যায়। গোটা ঘটনা সেখানে লাগানো ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। কিন্তু সব শান্ত হওয়ার পর দেখা যায় হোপ সেখানে নেই। তার আর কোনও খোঁজ মেলেনি, কোনও চিহ্নও পাওয়া যায়নি।


আরো সংবাদ




bedava internet