film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Ezhel Şarkıları indirEzhel mp3 indir, Ezhel albüm şarkı indir mobilhttps://guncelmp3indir.com Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে প্রধানমন্ত্রীকে এমপি হারুনের অনুরোধ

-

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনায় নিয়ে তাকে জামিনে মুক্তি দিতে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ জানিয়ে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেছেন, সত্যিকার অর্থেই তার (খালেদা জিয়ার) শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। আপনার কাছে (সংসদ নেতা) বিনীত অনুরোধ করছি বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে তার চিকিৎসার সুব্যবস্থা করুন, জামিনে মুক্তি দিন।

বৃহস্পতিবার রাতে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এ অনুরোধ জানান বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ। এ সময় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদ অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।

হারুনুর রশীদ বলেন, গত সংসদ অধিবেশনের পর সরকারের অনুমতি নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নিতে পিজি হাসপাতালে গিয়েছিলাম। সত্যিকার অর্থেই তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ দেখেছি। তিনি বাংলাদেশের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। তিনি দীর্ঘদিন বিরোধী দলের নেতার দায়িত্ব পালন করেছেন। সংসদ নেতাকে বিনীতভাবে অনুরোধ করব অন্ততপক্ষে তার চিকিৎসার জন্য তাকে জামিনে মুক্তি দিন। তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করুন। তিনি বলেন, তার (খালেদা জিয়ার) যে বয়স, তিনি আর চলাফেরা করতে পারেন না। অনুরোধ করব আমরা যারা বিরোধী দলের সংসদ সদস্য সংসদে যোগ দিয়েছি, এই সংসদের বাস্তব বিষয়গুলো তুলে ধরার জন্য। সংসদ নেতাকে অনুরোধ করব বিষয়টি বিবেচনার জন্য।

রেল দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে এই সংসদ সদস্য বলেন, কয়েক দিন আগে বড় ধরনের রেল দুর্ঘটনার শিকার হলাম, অনেক লোক মারা গেল। এখনো মানুষ ব্যথায় কাতর, চিকিৎসার জন্য ছুটাছুটি করছে। গতকাল রেলমন্ত্রী ৩০০ বিধিতে এখানে বিবৃতি দিলেন, ট্রেন যেন দুর্ঘটনার শিকার না হয়, যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন। পধানমন্ত্রী রেল উন্নয়নের জন্য ব্যাপক উদ্যোগ নিয়েছেন। কিন্তু প্রতিদিন যদি রেল দুর্ঘটনার মধ্য দিয়ে রেলের বগি আর ইঞ্জিন ধ্বংস হতে থাকে আর মানুষ মারা যেতে থাকে; এর প্রতিকার ও কারণ অনুসন্ধান করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন না? কালকে বিবৃতি দিয়ে আজকে দুর্ঘটনা!

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডের প্রসঙ্গ তুলে ধরে হারুনুর রশীদ বলেন, আবরার হত্যাকান্ডে দ্রুততম সময়ের মধ্যে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে। হত্যাকান্ডে একজন মেধাবী ছাত্র নিহত হলো, পাশাপাশি আরও ২৫ জন মেধাবী ছাত্রের জীবননাশ হলো। তাদের চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর দায়-দায়িত্ব কি সংগঠন (ছাত্রলীগ) এড়াতে পারে?

বিএনপি দলীয় এই সংসদ সদস্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন ছাত্রদের হত্যা করার অধিকার কে তুলে দিল? গত ১০-১২ বছর যাবৎ উচ্চ শিক্ষাঙ্গনে শিক্ষার পরিবেশ নেই। এই পরিবেশকে কিভাবে ফিরিয়ে আনতে পারি সেই বিষয়ে সংসদে আলোচনা করা দরকার। তিনি বলেন, আজকের একটি পত্রিকায় দেখলাম নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরে এসপি হারুনের ক্রিয়াকলাপের সংবাদ এসেছে। আমরা সত্যিকার অর্থে হতাশ!


আরো সংবাদ