২২ এপ্রিল ২০১৯

আপনার সন্তান দুরন্ত নাকি মানসিকভাবে অসুস্থ? সাবধান হোন

শিশুদের আচরণ তখনই পরিবর্তন হয় যখন তারা দুশ্চিন্তা বা মন খারাপের মধ্যে থাকে - সংগৃহীত

শিশুদের প্রতিনিয়ত রাগান্বিত বা আক্রমণাত্মক আচরণ সহ্য করা মা-বাবা অথবা শিক্ষক কারো জন্যই স্বাভাবিক বা সুখকর অভিজ্ঞতা নয়। তাদের এই আবেগের বহিঃপ্রকাশ যদি বাড়ির বাইরে হয় তাহলে এর পরিণতি ওই শিশুর জন্য আরো গুরুতর হতে পারে।

সেক্ষেত্রে কিভাবে বুঝবেন যে, আপনার সন্তান কেবল "দুষ্টু" নাকি তার এই অস্থির আচরণের পেছনে মানসিক অসুস্থতাই মূল কারণ?

শিশুরা কেন চিৎকার চেঁচামেচি করে?

এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে যুক্তরাজ্যের মেন্টাল হেলথ ফাউন্ডেশন সম্প্রতি ১০ থেকে ১৫ বছর বয়সী এক হাজার ৩২৩ জনের ওপর জরিপ পরিচালনা করে।

সেখান থেকে জানা যায়, শিশুদের আচরণ তখনই পরিবর্তন হয় যখন তারা দুশ্চিন্তা বা মন খারাপের মধ্যে থাকে।

জরিপে অংশগ্রহণকারী এক চতুর্থাংশের দাবি, তারা যখন উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে বা মন খারাপ থাকে তখন তারা মারামারি বা ঝগড়াঝাঁটিতে জড়িয়ে পড়ে।

বাকি আরো এক চতুর্থাংশ বলেছে মানসিক চাপে থাকলে তাদের হোমওয়ার্ক করাটা অনেক কঠিন হয়ে যায়।

"যেসব শিশু সহজেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। তাদের জন্য যেকোনো নতুন, অপরিচিত, কঠিন বা চাপযুক্ত জায়গা সম্ভাব্য হুমকি হিসাবে বিবেচিত হবে।"

"যখন শিশুরা মানসিক চাপে থাকে বা কোনো হুমকি অনুভব করে। তখন তাদের শরীরে প্রচুর পরিমাণে হরমোন এবং অ্যাড্রেনালিনের সৃষ্টি হয়। যার কারণে তাদের শরীর শক্তিশালী, দ্রুতগামী ও ক্ষমতাবান হয়ে ওঠে এবং তারা তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায়। এবং এই প্রতিক্রিয়া একপর্যায়ে প্রাকৃতিক-ভাবেই মিলিয়ে যায়।"

এতে সহজেই বোঝা যায় যে, অল্প বয়সীদের মানসিক উদ্বিগ্নতা কিভাবে খেলার মাঠের হাতাহাতি অথবা রাগের বিস্ফোরণে পরিণত হতে পারে।

খারাপ আচরণ মানেই কি মানসিক সমস্যা?

শেফিল্ডের ওয়েলস হাই স্কুলের নির্বাহী প্রধান শিক্ষক পেপ ডি'আসিও বলেন, "শিক্ষার্থীরা কখনোই স্কুলে এসে এটা বলে না যে, 'আজ আমি খারাপ আচরণ করতে যাচ্ছি।"

এই আচরণগত সমস্যার পেছনে অবশ্যই কোনো না কোনো কারণ রয়েছে।

এসব কারণ জানতে যাচাই করে নিতে হবে শিশুর পেছনের জীবনের কিছুটা ঘটনা।

খারাপ আচরণ প্রকাশ মানেই যে সে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার আক্রান্ত এমনটা ভাবার কোন কারণ নেই।

এ ব্যাপারে মনরোগবিদ ক্যরেন ইয়াং জানিয়েছেন, মানসিক উদ্বিগ্নতা, সুস্থ মস্তিষ্কের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া থেকে সৃষ্টি হতে পারে। তাদের এমন প্রতিক্রিয়া সুস্থ মস্তিষ্কেরই কাজ।

তবে এটাও ঠিক যে, খারাপ আচরণের সাথে মানসিক স্বাস্থ্য পরিস্থিতির যোগসূত্র রয়েছে।

"কারো যদি কোো সহায়তার প্রয়োজন হয় এবং সঠিক সময়ে যদি সে সেই সাহায্য না পায় তাহলে সেটা ব্যক্তির আচরণকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করতে পারে।"

রাগের বহিঃপ্রকাশ ছেলে ও মেয়েদের কি সমান?

রাগের প্রতিক্রিয়া সাধারণত মেয়েদের চেয়ে ছেলেদের বেশি হয়ে থাকে।

কেননা ছেলেদের নানা জায়গায় বাধার মুখে পড়ার হার মেয়েদের চেয়ে বেশি।

"ছেলেরা স্বভাবতই তাদের আচরণের বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। তারা লড়াই বা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এবং তাদের হতাশা সহজেই আঁচ করা যায়।

"অন্যদিকে মেয়েরা তাদের অনুভূতিকে স্বভাবতই দাবিয়ে রাখে। তারা শুধু একা থাকতে চায়।"

কখন বুঝবেন এটা মানসিক সমস্যা? করণীয় কি?

সাধারণত যেসব ছেলে বিক্ষিপ্ত আচরণ করে তাদের ওপর অনেক সময় খারাপ ছেলের লেবেল জুড়ে দেয়া হয়।

সুতরাং মা-বাবা এবং শিক্ষকরা কীভাবে বুঝতে পারবেন যে তাদের সন্তানের খারাপ আচরণ সীমা অতিক্রম করছে এবং মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে মোড় নিয়েছে?

দাতব্য ওয়েবসাইট মেন্টালি হেলদি স্কুলসের মতে, শিশুদের আচরণ থেকেই জানা যায় যে তারা কিভাবে নিজেদের গোপন সমস্যা বা দুর্দশার সাথে মানিয়ে চলছে।

তাই এটা বোঝা জরুরি যে, শিশুটি তার আচরণের মাধ্যমে আপনাকে কিছু বলার চেষ্টা করছে কিনা।

এ ব্যাপারে সাবেক শিক্ষক ব্রেন্ডা ম্যাকহিউ জানান, "আমাদের স্কুলে একবার ১০ বছর বয়সী একটা ছেলে বলেছিল যে সে মনে করতো যে সবাই তাকে 'মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা আক্রান্ত কড়া ছাত্র' হিসাবে দেখে।

"কিন্তু সে নিজেকে একজন দুশ্চিন্তাগ্রস্ত মানুষ হিসাবে বর্ণনা করে - যার সাথে তার মায়ের শারীরিক স্বাস্থ্য এবং ঘন ঘন হাসপাতালে ভর্তি থাকা যুক্ত - সে জানে না এ বিষয়ে সে কিভাবে কথা বলবে বা পরিস্থিতি কিভাবে সামলাবে।"

ওয়েস্টমিনস্টারের একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আচরণগত সমস্যায় আক্রান্ত ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সী মেয়েদের ওপর একটি ছোট জরিপ চালানো হয়।

এই মেয়েরা নিজেদেরকে উদ্বেগ-জনিত সমস্যায় আক্রান্ত বলে বর্ণনা করলেও শিক্ষকরা তাদের "বিক্ষিপ্ত মানসিকতার" বলে লেবেল জুড়ে দেয়।

এক্ষেত্রে স্কুলগুলোর মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

তারা বলেন, "আমরা যদি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলো প্রাথমিক অবস্থায় মোকাবেলা না করি, তাহলে পরবর্তী প্রজন্ম তাদের জীবনের শুরু থেকে ব্যর্থতার ঝুঁকিতে থাকবে।"

অতিরিক্ত রাগান্বিত শিশুরা সাধারণত একটা দ্বন্দ্বে ভোগে যে তারা কাকে বিশ্বাস করবে?

এসব শিশুর মেজাজ পরীক্ষা করে দেখা যায় যে, তাদের বেশিরভাগের আবেগ নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা খুবই কম। এজন্য তারা চাইলেও একে নিজের আয়ত্তে রাখতে পারে না।

এ কারণে এক পর্যায়ে তারা মানুষের সাথে স্বাভাবিক যোগাযোগের ক্ষমতাও হারিয়ে ফেলে। তাই এই আচরণগুলো যদি সময়ের সাথে চলতেই থাকে এবং মেজাজ প্রকাশের স্বাভাবিক সীমা অতিক্রমকে তারা আর পরোয়া করে না।

সেই সাথে যে আচরণ তাদের বিকাশ এবং জীবনের সম্ভাবনার পথে বিপদ ডেকে আনে। তখন এই বিষয়টিকে খতিয়ে দেখা জরুরি বলে মনে করেন গবেষকরা।

মানসিক অসুস্থতা বলতে কেবল কান্নায় ভেঙে পড়া, নিজেকে সবার থেকে আলাদা করে ফেলা বা নিজেকে আঘাত করা বোঝায় না।

মেন্টাল হেলথ ফাউন্ডেশনের পরিচালক ডাক্তার অ্যান্টনিস কৌসৌলিস বলেছেন, অল্প বয়সীদের যারা এ ধরণের আচরণগত মানসিক সমস্যায় ভুগছে। তাদের ক্ষেত্রে প্রায়ই একটা প্রশ্ন ওঠে যে, "তারা কি নিজেরা সমস্যাগ্রস্ত নাকি তারা কোনো সমস্যার মধ্যে আছে?"

গুরুতর এবং স্থায়ী আচরণগত সমস্যা ডাক্তারি ভাষায় কন্ডাক্ট ডিসঅর্ডার হিসাবে পরিচিত - যেটা শৈশবের সাধারণ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলোর একটি।

শিশুর কন্ডাক্ট ডিসঅর্ডার থাকার কয়েকটি লক্ষণ :

- বেশিরভাগ সময় ঝগড়াটে, ক্রদ্ধ, অসহযোগী এবং খিটখিটে মেজাজ থাকা।

- ঘন ঘন রাগের তীব্র বহিঃপ্রকাশ বা চিৎকার চেঁচামেচি করা।

- প্রতিনিয়ত ঝগড়া করার মেজাজে থাকা। এবং যেকোনো কিছু ঠিকঠাক না হলে সেজন্য অন্যকে দোষারোপ করা।

ম্যাকহিউ জানান, "এটি এমন একটি সমস্যা যা দীর্ঘসময় ধরেই চলে আসছে।"

তবে কখন এটি স্বাভাবিক আচরণ এবং কখন এটি রোগের উপসর্গ? সেটা ধরতে পারা খুব কঠিন বলে তিনি জানান।

এক্ষেত্রে শিশুর বাজে আচরণের হার কেমন সেটা বের করাই আসল কাজ বলে তিনি জানান।


আরো সংবাদ

যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিরাপত্তা বাহিনী সজাগ রয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজবাড়ীতে বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার শ্রীলঙ্কায় এবার মসজিদে হামলা ব্রুনাইয়ের সাথে বাংলাদেশের ৭টি চুক্তি স্বাক্ষর মানিকছড়ি বাজারে সিসি ক্যামেরা স্থাপনে সেনাবাহিনীর অনুদান শবেবরাতের নামাজের জন্য বেরিয়ে সহপাঠীদের হাতে খুন স্কুলছাত্র কলম্বিয়ায় ভূমিধসে ১৯ জনের প্রাণহানি উজিরপুরে লঞ্চচাপায় ডাব বিক্রেতার মৃত্যু : আটক ২ অভিনন্দনকে একটা বীর চক্র দিলেই সত্য পাল্টে যাবে না : পাকিস্তান মন্দিরে কয়েনের জন্য হুড়োহুড়ি : পদপিষ্ট হয়ে ৭ জনের মৃত্যু লক্ষ্মীপুর থেকে নিজ সন্তান হত্যাকারী যুবক আটক

সকল




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al
hd film izle
gebze evden eve nakliyat