২১ নভেম্বর ২০১৯

‘আমাদেরকে রাষ্ট্রীয় সংখ্যালঘুতে পরিণত করা হয়েছে’

-

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বলেছেন, দেশে আমাদেরকে রাষ্ট্রীয় সংখ্যালঘুতে পরিণত করা হয়েছে। কিন্তু এজন্য মুক্তিযুদ্ধ হয়নি। এটা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কাজ।

আজ শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানবন্ধন কর্মসূচিতে তিনি একথা বলেন। এতে সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক, নির্মল রোজারিও, মনীন্দ্র কুমার নাথ, ভদন্ত সুনন্দপ্রিয় মহাথেরো, বাসুদেব ধর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রানা দাশগুপ্ত আরো বলেন, সংবিধানকে সাম্প্রদায়িকীকরণ করে এবং রাষ্ট্র ধর্মকে রেখে কেউ বলতে পারেন না যে আপনারা নিজেদেরকে সংখ্যালঘু হিসাবে ভাবুন। আমরা সংখ্যার দিক থেকে সংখ্যার দিক থেকে লঘু হতে পারি। কিন্তু রাষ্ট্রে সংখ্যালঘু হিসাবে বেঁচে থাকার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করিনি, আত্মত্যাগ করিনি।

তিনি সরকারের উদ্দেশে বলেন, সংবিধানকে সাম্প্রদায়িক মুক্ত করেন। সব ধর্মকেই রাষ্ট্রধর্মের সম্মান দিন। অথবা সংবিধানকে বাহাত্তরের মৌল আদলে ফিরিয়ে নিয়ে যান। তখনই বলা যাবে বাংলাদেশে কোন সংখ্যালঘু নেই। রাষ্ট্রীয় বা রাজনৈতিকভাবে আমরা প্রতাািরত হতে চাই না। বিভেদ ও চোরাবালির গলিতে নিক্ষেপ করে যদি কেই মনে করে থাকেন সংখ্যালঘুদের তার অধিকার থেকে পেছনের দিকে ঠেলে দেয়া যাবে- এমনটা কোনো রাজনৈতিক দলের ভাববার অবকাশ নেই।

সমাবেশ থেকে সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন ও জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠনের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্যে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান তিনি। এর পাশাপাশি সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় গঠনের অঙ্গীকার করারও দাবি জানান তিনি।

তিনি জানান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ এদাবিতে সামনের দিকে এদাবিতে ঐকবদ্ধ আন্দোলন করবে।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, সংখ্যালঘু নিরাপত্তায় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতা সত্ত্বেও সংখ্যালঘুদের উপসনালয়ে হামলা, তাদের বাড়িঘর, দোকানপাট লুট, জমি জবরদখল, নারী অপহরণ ও নির্যাতন আজো অব্যাহতভাবে চলছে। এব্যাপারে সমাবেশ থেকে ভদন্ত অমৃতাদন্দ ভিক্ষু হত্যা, গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতালদের পুনরায় হামলা-হয়ারানি, পাহাড়ে-সমতলে অব্যাহত সাম্প্রদায়িক উস্কানি, পটুয়াখালির কুয়াকাটার আটটি দোকান লুটের ঘটনা তুলে ধরেন তারা।

অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন বাস্তবায়নে প্রশাসনের গড়িমসি ও অনীহায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, একারণে জনমনে প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।


আরো সংবাদ

চতুর্থ দিনের মতো খুলনায় বাস চলেনি মুজাহিদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জামায়াতের পরিবহন শ্রমিকদের দাবিতে অসঙ্গতি আছে কি-না খতিয়ে দেখা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মঠবাড়িয়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীদের দিয়ে ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা দেয়ার অভিযোগ ৭ রানে অলআউট, ৭৫৪ রানে হার লক্ষ্মীপুরে বিয়ে বাড়ির গেট নিয়ে সংঘর্ষ আহত-৮ লতা মঙ্গেশকরের অবস্থার উন্নতি, শিগগিরই বাসায় ফিরবেন ব্যাট-বল হারিয়ে ফেলায় ৫ শিক্ষার্থীকে পেটালেন দুই শিক্ষক সোনারগাঁওয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জাহাজ নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজারের মৃত্যু নয়াদিগন্তের বানিয়াচং সংবাদদাতার চাচার ইন্তেকাল ক্রিকেট থেকে বিরতি নিলেন সানা মীর

সকল