১৪ অক্টোবর ২০১৯

দেশের উন্নয়নে প্রকৌশলীদের ভূমিকা অপরিসীম : আইইবি প্রেসিডেন্ট

ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি) প্রেসিডেন্ট এবং আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর বলেছেন, দেশের সার্বিক অবকাঠামোগত উন্নয়ন, প্রযুক্তিগত উৎকর্ষ সাধন এবং দেশের উন্নয়নে প্রকৌশলীদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। দেশে প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রকৌশলীরা সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশের প্রকৌশলীরা আজ শুধু দেশে নয় সারা বিশ্বে সুনামের সাথে কাজ করছেন।

বুধবার আইইবি’র মিলনায়তনে ‘অ্যাসোসিয়েট মেম্বার অব দ্য ইনিস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স’ (এএমআইই)-এর ৭৮ তম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন প্রোগামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আইইবি ঢাকা কেন্দ্রের সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী শাহাদাৎ হোসেন শিবলুর সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন আইইবি ঢাকা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. ওয়ালিউল্লাহ সিকদার।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আইইবি’র ভাইস-প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. নুরুজ্জামান, প্রকৌশলী এসএম মনজুরুল হক মঞ্জু, প্রকৌশলী মোল্লা মোহাম্মদ আবুল হোসেন, ড. প্রকৌশলী এমএম সিদ্দিক, আইইবি’র সম্মানী সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আইইবি’র এএমআইই এর পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও বাংলাদেশ প্রফেসনাল ইঞ্জিনিয়ার্স রেজিস্ট্রেশন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. প্রকৌশলী দীপক কান্তি দাশ।

মো. আবদুস সবুর বলেন, বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর প্রকৌশলীদের সুযোগ সুবিধা আগের তুলনায় অনেক বাড়িয়েছেন। যার ফলে এখন দেশের মেধাবী সন্তানরা আর বিদেশ মুখি হচ্ছেন না। দেশে থেকেই দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ আজ মধ্যমআয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে। যা এখন আর কল্পনা বা অনুমানের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই, বিষয়টি এখন দৃশ্যমান। বিশ্বব্যাংক, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক বা এ ধরনের যে সমস্ত সংস্থা রয়েছে, তাদের সকলেরই অভিমত, বাংলাদেশ সামনের পাঁচ বছরের মধ্যে একটি মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হবে। বর্তমান বাংলাদেশ সরকারও দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে যে, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মধ্যম আয়ের দেশ হবে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ পৃথিবীর উন্নত দেশের কাতারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum