২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দেশে প্রথমবারের মতো ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সামিট অনুষ্ঠিত

-

দেশে প্রথম বারের মতো ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটির সামিট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল পূর্বাণীতে এই সামিটের উদ্ধোধন করেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান।

অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে বাংলাদেশ মেডিয়েশন সোসাইটি (বিমস)।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সামিট বাস্তবায়ন কমিটির চেয়ারম্যান এয়ার কমোডর (অব) এম. ওবায়দুর রহমান। ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েটর কে এস শর্মার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, মেডিয়েশন সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডভোকেট সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী, ইন্টারন্যাশনাল আরবিট্রেটর্স ইনবাভিজান, কম্বোডিয়া সরকারের প্রতিনিধি হুও ভিয়েসনা ও বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটির রিজওনাল ডিরেক্টর ইরাম মজিদ।

সামিটে উপস্থিত ছিলেন, অ্যাডভোকেট হরিদাস পাল, ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েটর্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট কেভিন ব্রাউন, ভারতের জাতীয় ইন্দিরা গান্ধী পুরস্কার প্রাপ্ত ও ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন ট্রেইনার পিভি রাজা গোপাল, ইন্টারন্যাশনাল ট্রেইনার অন সলিডারিটি জিল কার্ল হারিস, ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব আরবিট্রেশন অ্যান্ড মেডিয়েশনের সভাপতি অনিল জাভিয়ার।

বক্তব্যে সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী বলেন, গত ৩১ মে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা পায়। আর এক বছরের মাথায় এটি একটি আন্তর্জাতিক কনফারেন্স করছে। ইতিমধ্যে কয়েকটি কর্মশালাও করেছে। এছাড়া বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ১ জুন থেকে পর্যায়ক্রমে উপজেলা পর্যায়ে ‘পিপলস মেডিয়েশন সেন্টার’ প্রতিষ্ঠা করতে চলেছি। যার দ্বারা গ্রামীণ সাধারণ জনগণ মেডিয়েশন সম্পর্কে সম্যক ধারণা পেতে পারবে এবং সম্প্রীতির মাধ্যমে সকল পর্যায়ে নিজেদের বিরোধ নিষ্পত্তিতে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

‘মেডিয়েশনের মধ্যেই বর্তমান বিচার পদ্ধতির ভবিষ্যত নির্ভর করছে। এ জন্য মেধাবান আইনজীবী ও মেধাবান বিচারকদের আত্মসম্পর্ক এবং জনগণের সঙ্গে মেডিয়েটর দের মতবিনিময় ও সমঝোতা প্রতিষ্ঠার প্রয়াসের প্রয়োজন।’

এই আন্তর্জাতিক সামিটে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে তিন শতাধিক ডেলিগেট অংশ নেয়।


আরো সংবাদ