film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ইয়েমেনের যুদ্ধ অবসানে হাউছিদের সাথে আলোচনা রিয়াদের

হাউছিদের সাথে আলোচনা করছে যুক্তরাষ্ট্রও
-

ইয়েমেনে গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটাতে দেশটির ইরান-সমর্থিত হাউছি বিদ্রোহীদের সাথে আলোচনায় বসেছে রিয়াদ। বুধবার সৌদি আরবের একজন সরকারি কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন। এটাই দু’পক্ষের মধ্যকার সংলাপের ব্যাপারে প্রথমবারের মতো সরকারিভাবে নিশ্চিত করা হলো।
ইয়েমেনের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকার ও দক্ষিণাঞ্চলীয় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে সৌদি আরবের মধ্যস্থতায় ক্ষমতা ভাগাভাগি চুক্তির পরে এই মন্তব্য করা হয়েছে। পর্যবেক্ষকরা বলছে, এই পদক্ষেপ বৃহত্তর শান্তিচুক্তির পথ প্রশস্ত করতে পারে। সৌদি আরবের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, ‘২০১৬ সাল থেকে হাউছিদের সাথে আমাদের একটি উন্মুক্ত চ্যানেল রয়েছে। আমরা ইয়েমেনে শান্তির পক্ষে এই যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা হাউছিদের সাথে আমাদের আলোচনার দরজা বন্ধ করিনি।’
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই কর্মকর্তা আলোচনার বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি। তবে গ্রীষ্মে সৌদি শহরগুলোতে বিদ্রোহীদের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলার পরে বৃদ্ধি পাওয়া উত্তেজনা সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে কমে গিয়েছে। হাউছি বিদ্রোহীদের কাছ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। হাউছি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে ইয়েমেনের রাজধানী সানা এবং দেশটির বেশির ভাগ অংশ দখল করেছিল। এরপরে মার্চে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট হস্তক্ষেপ শুরু করে।
যুক্তরাষ্ট্রের নিকটপ্রাচ্যবিষয়ক সহকারী মন্ত্রী ডেভিড শেনেকার সেপ্টেম্বরে সৌদি আরব সফরের সময় বলেছিলেন ওয়াশিংটনও হাউছিদের সাথে আলোচনা করছে। আমেরিকানরা বিদ্রোহীদের সাথে আলাদাভাবে আলোচনা করছে কি না তা তিনি বলেননি। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, সম্ভবত ওয়াশিংটনের মূল সহযোগী সৌদি আরবের সাথে আলোচনা করেছিল বিদ্রোহীরা।
বিদ্রোহীদের অধিকৃত হুদাইদায় একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি সম্পাদনের মাইলফলক অর্জনের মধ্য দিয়ে আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে, যে ব্যাপারে গত বছরের শেষ দিকে সুইডেনে সরকার ও হাউছিরা একমত হয়েছিল। ইয়েমেনের চার বছরের সঙ্ঘাতের অবসান ঘটাতে এখন পর্যন্ত সেরা সুযোগ হিসেবে এই চুক্তিটির প্রশংসা করা হয়েছিল। তবে চুক্তিটি লঙ্ঘন নিয়ে উভয়পক্ষ থেকে জানানো অভিযোগের কারণে এটিকে ঝুলন্ত বলে মনে হয়েছে। সৌদি কর্মকর্তা বলেছেন, ‘যদি হাউছিরা আলোচনার টেবিলে আসতে সম্মত হয় তবে সৌদি আরব তাদের দাবিকে সমর্থন করবে এবং রাজনৈতিক সমাধানে পৌঁছানোর জন্য সব রাজনৈতিক দলকে সমর্থন করবে।’
হাউছিরা তাদের পক্ষ থেকে বিস্তৃত শান্তি উদ্যোগের অংশ হিসেবে সৌদি আরবের ওপর সব হামলা বন্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছে। পরে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের অব্যাহত বিমান হামলা সত্ত্বেও তাদের প্রস্তাবটির পুনরাবৃত্তি তারা করেছিল।
১৪ সেপ্টেম্বরে সৌদি আরবের দু’টি মূল তেল স্থাপনায় হাউছিদের হামলায় ওপেকের শীর্ষ তেল উৎপাদনকারী দেশটির তেল উৎপাদন সাময়িকভাবে অর্ধেক কমে গিয়েছিল। হাউছিদের হামলার দায় স্বীকার করার পরে এই প্রস্তাব দেয়া হয়। তবে রিয়াদ ও ওয়াশিংটন এই হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করে চলেছে। তেহরান রিয়াদ ও ওয়াশিংটনের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
এ দিকে ইয়েমেনে চলমান যুদ্ধ বন্ধে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত দেশটির সরকার ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে একটি ক্ষমতা ভাগাভাগি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। সৌদি আরবের যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান মঙ্গলবার ইয়েমেন সরকার ও দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে স্বাক্ষরিত এই চুক্তির কথা ঘোষণা করেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের দক্ষিণাঞ্চলে সরকারি বাহিনীর সাথে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের লড়াই অবসানে এই চুক্তি ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
মঙ্গলবার রিয়াদে এই চুক্তি স্বাক্ষরের পর এই চুক্তিকে ‘রিয়াদ এগ্রিমেন্ট’ আখ্যা দিয়ে যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান বলেন, এই চুক্তি ইয়েমেনে চার বছর ধরে চলা রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ অবসানে একটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক সমঝোতা হিসেবে কাজ করবে। এই চুক্তি ইয়েমেনকে স্থিতিশীলতার এক নতুন যুগে নিয়ে যাবে। সৌদি আরব ইয়েমেনের পাশে রয়েছে। আজকের দিনটি সৌদি আরব, ইয়েমেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের জন্য অত্যন্ত আনন্দের। ইয়েমেনের সরকার ও বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে মঙ্গলবারের এই সমঝোতার ফলে উভয়পক্ষের সমান অংশীদারিত্বের মাধ্যমে দেশটিতে সরকার প্রতিষ্ঠা হবে। ইয়েমেনের সেনাবাহিনীও সরকারের নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। সব সেনাবাহিনী ও নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যদের প্রতিরক্ষা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
ইয়েমেনের মিলিশিয়া বাহিনী এই সমঝোতাকে স্বাগত জানিয়েছে। বাহিনীর কমান্ডার মোহদার আল কামারি এই সমঝোতাচুক্তি বিষয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, আমরা ইয়েমেনের দক্ষিণাঞ্চলের বাসিন্দারা ‘রিয়াদ এগ্রিমেন্টকে’ স্বাগত জানাই কারণ এটি দীর্ঘ লড়াই বন্ধে ভূমিকা রাখবে।
ব্রাসেলস-ভিত্তিক থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ক্রাইসিস ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপের ইয়েমেনবিষয়ক বিশেষজ্ঞ পিটার সালসবারি বলেন, ইয়েমেনের সরকার ও বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যেকার এই সমঝোতাকে যদি সফলভাবে কার্যকর করা যায় তবে দু’টি স্বল্পমাত্রার সমস্যা নিরসনে এটি ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে ইয়েমেনে যুদ্ধ এবং দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে বিচ্ছিন্নতাবাদী ও মানসুর হাদি সরকারের মধ্যে চলমান যুদ্ধ নিরসন করা যাবে। তবে এই ইয়েমেনবিষয়ক বিশেষজ্ঞ সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেছেন, চুক্তিটির শর্তগুলো হতে হবে খোলামেলা ও ব্যাখ্যামূলক। চলতি বছরের আগস্ট মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতভিত্তিক বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ইয়েমেনের দক্ষিণাঞ্চলে স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। এডেন শহর থেকে সরকারি সৈন্যদের হটিয়ে দিয়ে তারা এখানে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে। কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা এই রক্ষক্ষয়ী যুদ্ধে দেশটিতে চলমান হাউছিবিরোধী যুদ্ধ ঝিমিয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দেয় এবং দেশটিতে চলমান গৃহযুদ্ধ নিরসনে সমঝোতার বিষয়টিও হুমকির মুখে পড়ে। সৌদিরা চায় যে হাউছিরা ইরানের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করবে, রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তাবাহিনী ভারী অস্ত্র ব্যবহার ছেড়ে দেবে এবং সীমান্ত সুরক্ষার নিশ্চয়তা দেবে।

 


আরো সংবাদ

ধেয়ে আসছে লাখে লাখে পঙ্গপাল, ভয়াবহ আক্রমণের ঝুঁকিতে ভারত (১২২৯৮)এরদোগানের যে বক্তব্যে তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠল ভারত (১০৮১০)বিয়ে হল ৬ ভাই-বোনের, বাসর সাজালো নাতি-নাতনিরা (৮২৩০)জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশের নির্মম অত্যাচারের ভিডিও ফাঁস(ভিডিও) (৭২০১)কেউ ঝুঁকি নেবে কেউ ঘুমাবে তা হয় না : ইশরাক (৬৩৩৩)আ জ ম নাছির বাদ চট্টগ্রামে নৌকা পেলেন রেজাউল করিম (৫২৮৮)মাওলানা আবদুস সুবহানের জানাজায় লাখো মানুষের ঢল (৫১১৩)‘ইরানি হামলায় মার্কিন ঘাঁটির ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ নিজেরাই প্রকাশ করুন’ (৪৮০২)জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট দল ঘোষণা, বাদ মাহমুদউল্লাহ (৪৫৩০)মাঝরাতে ধর্ষণচেষ্টায় ৭০ বছরের বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গ কাটল গৃহবধূ (৪৪৩৯)