১৭ অক্টোবর ২০১৯

পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন জাপানে শান্তিবাদী সংবিধানের ভবিষ্যৎ নিয়ে বিতর্ক

-

জাপানের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। বিশেষ কারণেই এবারের নির্বাচন জাপানিদের কাছে অতথ্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর তা হলো, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সংবিধান পরিবর্তনের ঘোষণা। জাপানের সংবিধান পরিবর্তন করা হবে কি না সেই প্রশ্নে জাপানে বিতর্ক চলছে।
জাপানের সংবিধানের ‘শান্তিবাদী অংশ’ তুলে দিতে চাইছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। যদি নির্বাচনে তার ক্ষমতাসীন জোট জয় পায় তাহলে নিশ্চিতভাবেই হুমকির মুখে পড়বে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ১৯৪৭ সালে রচিত জাপানের ‘শান্তিবাদী সংবিধান’।
এ দিকে নির্বাচনী পূর্বাভাসে বলা হয়েছে শিনজো আবের দল নিরঙ্কুশ জয় পাবে। গণমাধ্যমের এক জরিপে দেখা গেছে আবের লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এলডিপি) উচ্চকক্ষের ২৪৫টি আসনের মধ্যে অন্তত ১২৪টি আসনে জয় পাবে। সংবিধান সংশোধনের ক্ষমতা পেতে আবের দলকে দুই-তৃতীয়াংশ সিটে জয় পেলেই হবে। আর এর জন্য আবের জোটকে পেতে হবে ৮৫টি আসন।
যদি তারা দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারায় তবে সংবিধান সংশোধন করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। উচ্চকক্ষের এই নির্বাচন প্রতি তিন বছর পর পর হয়ে থাকে।
দেশটিতে রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে ভোট শুরু হয় এবং রাত ৮টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলে।
এ দিকে গতকালের নির্বাচনে ৫০ শতাংশেরও কম ভোট কাস্ট হতে পারে বলে নির্বাচনী বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন। তবে ভোট যাই পড়ুক, দেখার বিষয় হলো ক্ষমতাসীন এলডিপি উচ্চকক্ষে দুই-তৃতীয়াংশ আসন পায় কি না।
১৯৪৭ সালের ৩ মে জাপানের সংবিধান প্রণয়ন করা হয়। এরপর গত ৭১ বছরেও এতে কোনো পরিবর্তন বা সংশোধন আনা হয়নি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রণয়ন করা সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৯ অনুসারে সশস্ত্রবাহিনী রাখা থেকে বিরত আছে জাপান। এর বদলে আত্মরক্ষাবাহিনী রেখে আসছে দেশটি।
একই অনুচ্ছেদে রাষ্ট্র হিসেবে জাপানের যুদ্ধে যোগদানের অধিকার আনুষ্ঠানিকভাবে নিষিদ্ধ করে ন্যায়বিচার ও শৃঙ্খলার ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক শান্তি বজায় রাখার কথা বলা হয়েছে। আরো বলা হয়েছে, যুদ্ধের সম্ভাবনা নিয়ে কোনো সেনাবাহিনী গঠন করা যাবে না। কিন্তু জাপানের এ পুরুষানুক্রমিক শান্তিবাদী নীতি থেকে বের হয়ে আসতে চান ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নেতা ও প্রধানমন্ত্রী আবে। সংবিধানের ‘শান্তিবাদী অংশ’ সংশোধন করতে চান তিনি।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum