১৮ মার্চ ২০১৯

মিয়ানমারে সেনা বিরোধিতা সত্ত্বেও সংবিধান সংশোধন কমিটি গঠন

-

সেনাবাহিনীর তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও মিয়ানমারের পার্লামেন্ট গতকাল মঙ্গলবার দেশটির সংবিধান সংশোধন করে একটি খসড়া সংবিধান প্রণয়ন করতে ৪৫ সদস্যের কমিটি গঠনের অনুমোদন দিয়েছে। বর্তমান সংবিধানে সেনাবাহিনীকে ব্যাপক ক্ষমতা দেয়া হয়েছে।
গত সপ্তাহে ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসির (এনএলডি) সদস্য অং কি নাইন্ট পার্লামেন্টে কমিটি গঠনের প্রস্তাব উত্থাপন করেন। ২০০৮ সালে সেনাবাহিনী ব্যাপকভাবে দেশটির নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে রেখে নতুন সংবিধান তৈরি করে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে অং সাং সুচির নেতৃত্বাধীন এনএলডি ক্ষমতায় আসে। এরপর এই প্রথম এনএলডি দেশের সংবিধান সংশোধনের উদ্যোগ নিলো।
এনএলডির সদস্য অং কি নাইন্ট বলেন, ‘কমিটি বর্তমান সংবিধান পর্যালোচনা করবে এবং এতে সংশোধনীর খসড়া প্রস্তাব দেবে। বেশির ভাগ সদস্য যেটিকে অগণতান্ত্রিক মনে করবে তার তালিকা তৈরি করবে এই কমিটি।’
পার্লামেন্ট যখন প্রস্তাব অনুমোদন করার পক্ষে ভোট দেয় তখন সশস্ত্রবাহিনীর প্রধান জেনারেল আং হোলিংয়ের নিয়োগ দেয়া প্রতিনিধিরা নীরবে দাঁড়িয়ে ছিলেন।
সংবিধানে তিনটি মন্ত্রণালয়- প্রতিরক্ষা, স্বরাষ্ট্র ও সীমান্ত বর্তমানে সশস্ত্রবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ছাড়া আঞ্চলিক ও জাতীয় পার্লামেন্টের ২৫ ভাগ আসন তাদের জন্য সংরক্ষিত রাখা আছে। সংবিধান সংশোধনের যেকোনো প্রস্তাবে ভেটো দেয়ার ক্ষমতাও রয়েছে সশস্ত্রবাহিনীর।

 


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al