২৩ জুন ২০১৮

তাজমহলের গেটে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের হামলা

-

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের (ভিএইচপি) একটি দল গত রোববার তাজমহলের পশ্চিম গেটে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের চেষ্টা করেছে। এর কারণ হিসেবে তারা জানায়, ভারতের প্রতœতত্ত্ব বিভাগ ৪০০ বছরের পুরনো একটি শিবমন্দিরে প্রবেশে তাদের বাধা দিচ্ছে। ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, বিশ্ব হিন্দু পরিষদের কর্মীরা হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে তাজমহলের পশ্চিম গেট (বাসাই ঘাটের ওপর অবস্থিত) ভাঙচুরের চেষ্টা করছে। এমনকি প্রতœতত্ত্ব বিভাগের তৈরি একটি অস্থায়ী গেটও সরিয়ে ফেলে হিন্দু পরিষদের কর্মীরা।
এ ঘটনায় ভিএইচপির পাঁচ সদস্যের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছে ভারতের প্রতœতত্ত্ব বিভাগ। এছাড়া আরো ২০-৩৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। জানা গেছে, মূলত তাজমহলের কাছাকাছি একটি এলাকায় নির্মাণকাজ চলায় ওই জায়গাটি বন্ধ রাখা হয়েছে। এক্ষেত্রে সিদ্ধেশ্বর মহাদেব মন্দির নামের ওই শিব মন্দিরটিতে যাওয়ার জন্য অন্য একটি পথ রাখা হয়েছে। তবে তাতে সন্তুষ্ট নয় উগ্রপন্থী এই সংগঠনটি। তাজমহল নিরাপত্তা বিভাগের সার্কেল কর্মকর্তা প্রভাত কুমার বলেন, ‘রোববার ভিএইচপির প্রায় ২০-২৫ জন কর্মী তাজমহলের পশ্চিম ফটকের সামনে সমবেত হয় এবং অস্থায়ী গেটটি ভাঙচুর করতে শুরু করে। তারা হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে হামলা করে। গেটটি সরিয়ে তা ৫০ মিটার দূরে নিপে করে। এ সময় তারা তাজমহল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেও সেøাগান দিতে থাকে। পরে পুলিশ এসে তাদের থামায়।’ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ভিএইচপি সদস্য রবি দুবে বলেন, ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত এ স্থাপনা থেকে হিন্দু সংস্কৃতিবিষয়ক সব জিনিস সরিয়ে ফেলায় তারা এএসআইয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন। গত ১৪-১৫ বছরে সমাজবাদী পার্টি এবং বহুজন সমাজ পার্টির শাসনামলে এসব ঘটনা ঘটে।

 


আরো সংবাদ