Naya Diganta

বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে থানায় থানায় বিক্ষোভ

বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র উদ্যোগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র সকল থানায় থানায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশি বাধার মধ্যেও বিভিন্ন থানার নেতৃবৃন্দ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই কর্মসূচি সফল করেন বলে জানায় দলটি। কর্মসূচি চলাকালে বিভিন্ন স্থানে পুলিশি হামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ ১২/১৩ জন আহত হন বলেও জানায় বিএনপি।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।  প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়  শাহবাগ, রমনা, মতিঝিল ও পল্টন থানা বিএনপি’র উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশ অর্তিকিত হামলা চালিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশ নেতাকর্মীদেরকে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কয়েক ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। মিছিলের প্রস্তুকালে ৩/৪ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

কামরাঙ্গীর চর থানা

কামরাঙ্গীরচর থানা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ মনির হোসেন চেয়ারম্যান এর নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল ঝাউচর বেড়ীবাঁধ থেকে শুরু হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মাদ্রাসা মোড় হয়ে রনি মার্কেটের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন বিএনপি’র নেতা হাজী আওলাদ হোসেন, মোঃ পারভেজ মিয়া, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, মোঃ খায়ের উদ্দিন, মোঃ চান মিয়াসহ ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও শ্রমিক দলের অসংখ্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কদমতলী থানা

তিন বারের সাবেক প্রধান মন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার  মুক্তির দাবীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি, কদমতলী থানা এর উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি, কদমতলী থানার সংগ্রামী সভাপতি হাজী মীর হোসেন মীরু নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি জুরাইন রেল গেইট হইতে খন্দকার রোড মুন্সিবাড়ী এসে শেষ হয়।

শ্যামপুর ও কদমতল থানা

শ্যামপুর ও কমতলী থানার বিএনপির উদোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তারভীর আহমেদ রবিন এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি পোস্তগোলা ব্রিজ থেকে শুরু হয়ে প্রধান সড়ক পদক্ষিণ করে ধেলাইপাড় গীত সংগীত সিনেমা হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

সুত্রাপুর, ওয়ারী থানা

সূত্রাপুর ও ওয়ারী থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল ওয়ারী থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক মুক্তো ও সূত্রাপুর থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজিজুল উসলাম আজিজ এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি নবাবপুর ডিসেন্ট বেকারীর সামনে থেকে শরু হয়ে গুলিস্তান কাপ্তান বাজারের মাথা থেকে প্রদক্ষিণ করে নবাপুর স্কুলের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

নিউমার্কেট থানা

নিউমার্কেট থানা বিএনপি’র উদ্যোগে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি’র সভাপতি এড. মকবুল হোসেন সরদার ও সাধারণ সম্পাদক হাজী জাহাঙ্গীর হোসেন পাটোয়ারীর নেতৃত্বে এ্যালিফেন্ট রোড থেকে শুরু হয়ে বাটা সিগনাল মোড় প্রদক্ণি কওে সায়েন্স ল্যাবরেটরী মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। মছিলে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন নিউমার্কেট থানা বিএনপি’র অসংখ্য নেতাকর্মী ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল উপস্থিত ছিলেন।

খিলগাঁও থানা

খিলগাঁও থানার বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষেভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি সহ-সভপতি ইউনুস মৃধা ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. ফারুকুল ইসলাম এর নেতৃত্বে খিলগাঁও চৌরাস্তা থেকে শুরু হয়ে খিলগাঁও রেলগেইট গিয়ে শেষ হয়। উক্ত মিছিলে উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপি’র মামুনুর রহমান আকন, হুমায়ন কবির, সাজ্জদুর রহমান, মাসুদ চৌধুরী, মনির মির্জা, আবুল হাসানাত অনুসহ অসংখ্য নেতৃবৃন্দ।

বংশাল থানা

বংশাল থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল সাধারণ সম্পাদক মামুন আহমেদ এর নেতৃত্বে নবাবপুর রোড আলু বাজার থেখে শুরু হয়ে বংশাল রোড প্রদক্ষিণ করে নবাবপুর রোডের উত্তর মাথা গুলিস্থান গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আঃ রহমান, মাহাবুব রহমান, মোঃ ডালিম, মোঃ কামাল, লিটন, মোঃ তারিকসহ অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গেন্ডারিয়া থানা

গেন্ডারিয়া থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল দিননাথ সেন রোড সাধনা গলি থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদিিক্ণণ কওে গেন্ডারিয় ফায়ার সার্ভিস রোডে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াসেক বিল্লাহ, এইচ এম জাকির, মোঃ আমিন উদ্দিন, ওমর মোতালেব টিটু, কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন বুলু, বিপুল আহমেদ, মোঃ সেলিম প্রমুখ।