Naya Diganta

সন্ধান মিলেছে শ্রমিকদল সাধারণ সম্পাদকের

সন্ধান মিলেছে শ্রমিকদল সাধারণ সম্পাদকের

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিমের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানা গেছে। গত ৭ ডিসেম্বর রাজধানীর শান্তিনগরে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের বাসায় শ্রমিকদলের সম্মেলন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেনের ফোন দিয়ে শ্রমিক দল কেন্দ্রীয় সভাপতি আনোয়ার হোসাইনের সাথে তিনি কথা বলেছেন বলে জানা গেছে। তবে এই মুহূর্তে তিনি কোথায় আছেন, তা স্পষ্টভাবে জানা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য গত ৬ নভেম্বর থেকে নুর ইসলাম খান নাসিম নিখোঁজ ছিলেন বলে গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়। এ বিষয়ে নুরুল ইসলাম খান নাসিমের স্ত্রী লুৎফুন্নাহার লতা তার স্বামীর সন্ধান চেয়ে হাতিরঝিল থানায় গত ২২ নভেম্বর একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। সাধারণ ডায়েরি করার পরে তার স্ত্রী তার সন্ধান চেয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেন। সেখানে নুরুল ইসলাম খান নাসিমের স্ত্রী উল্লেখ করেন, গত ৬ নভেম্বর নুরুল ইসলাম খান নাসিম বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফিরে আসেননি। এমনকি তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার ০১৫৫২৪১৭৭৭৯ ও ০১৭৯৮০৪০২৯১ বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

নুরুল ইসলাম খান নাসিমের সন্ধান চেয়ে হাতিরঝিল থানায় করা সাধারণ ডায়েরির তদন্ত কর্মকর্তা এস আই মাসুদ খলিফা নয়া দিগন্তকে বলেন, নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান চেয়ে তার স্ত্রী একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। আমার উপর তদন্ত ভার পড়ার পরে আমি সন্ধান করতে যেয়ে তার ফোনে একবার কথা হয় এবং নিখোঁজ নাসিম জানান তিনি তার গোপীবাগের বাসায় আছেন। আমার মনে হচ্ছে, এটি তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধের বিষয়। পরে তারা আমাদের সাথে আর যোগাযোগ করেনি।

৭ ডিসেম্বর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন বাসায় বৈঠকে উপস্থিত থাকা শ্রমিক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুল করিম মজুমদার নয়া দিগন্তকে বলেন, ওই দিনের মিটিংয়ে আমাদের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিম ফোনে বৈঠকে থাকা শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি আনোয়ার হোসাইন ও সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেনের সাথে ফোনে কথা বলেন।

নিখোঁজ নাসিমের সন্ধান পাওয়া গেছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তার স্ত্রী লুৎফুন্নাহার লতা নয়া দিগন্তকে বলেন, থানায় জিডি ও পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরে তিনি আমাকে এক দিন ফোন দিয়ে বলেছেন যে তিনি পায়ে ব্যথা পেয়েছেন। সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরবেন। এরপরে তার সাথে আমার আর কোনো কথা হয়নি।