Naya Diganta

পাকুন্দিয়ায় বিএনপির আহ্বায়ককে মুঠোফোনে হুমকি

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিনকে ‘মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা’ পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি মুঠোফোনে গালাগাল ও রাজনৈতিক মামলায় জড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত শনিবার দুপুরে অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিন বাদি হয়ে পাকুন্দিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।
সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিনের মুঠোফোনে ০১৭০১-৭৯৩৫৬৯ নম্বর থেকে একটি কল আসে। তিনি কলটি রিসিভ করে পরিচয় জানতে চাইলে কলদাতা নিজেকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেন। ফোন দেয়ার কারণ জানতে চাইলে কলদাতা বলেন, ‘আপনার নামে পাকুন্দিয়া থানার ১৩(১২)১৮ নম্বর মামলার চার্জশিট দেয়া হচ্ছে। বিকাশের মাধ্যমে টাকা পাঠালে ওই মামলা থেকে আপনার নাম বাদ দেয়া হবে। এ সময় জালাল উদ্দিন বলেন, আমার নামে কোনো মামলা নেই। আমি টাকা দিতে পারব না, আপনি পারলে আমার নাম মামলায় সংযুক্ত করে দেন। এ কথা বলার পর কলদাতা ক্ষিপ্ত হয়ে জালাল উদ্দিনকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন এবং বিস্ফোরকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক মামলায় জড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেন।
এ ব্যাপারে জানতে গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে পাকুন্দিয়া থানার ওসি (তদন্ত) শফিকুল ইসলামের মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্তসাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।