Naya Diganta
বেনাপোল-ঢাকা রেলের উদ্বোধন

উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল যথেষ্ট ভালো : প্রধানমন্ত্রী

বেনাপোল-ঢাকা রেলের উদ্বোধন
ভিডিও কনফারেন্সে আন্ত:নগর ট্রেনের উদ্বোধন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হ বাসস

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ফলাফলের প্রশংসা করে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন, শিক্ষার্থীরা আরো মনোযোগী হলে ভবিষ্যতে তারা আরো ভাল ফল করতে পারবে। তিনি বলেন, ‘৭৩ দশমিক ৯৩ ভাগ পাস করেছে। এটা যথেষ্ট ভালো এবং গ্রহণযোগ্য ফল। আমি মনে করি শিক্ষার প্রতি শিক্ষার্থীরা আরো মনোযোগী হলে তারা আরো ভালো ফল করতে পারবে, সেটা আমার বিশ্বাস।’ প্রধানমন্ত্রী গতকাল সকালে গণভবনে এ বছর ২০১৯’র এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী এ সময় মাত্র ৫৫ দিনে ফল প্রকাশ করায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান। ছাত্রীদের পাসের হার বেশি হওয়ায় জেন্ডার সমতার কথাটি স্মরণ করিয়ে ছাত্রদেরও পাসের হার বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ছাত্রদের পাসের হারটা বাড়তে হবে, যাতে জেন্ডার সমতাটা এসে যায়।’
অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের সার-সংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। পরে ১০টি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা পৃথকভাবে প্রধানমন্ত্রীর হাতে পরীক্ষার ফলাফল তুলে দেন।
নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করতে তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে ভালোবাসার পাশাপাশি দেশের জন্য নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করার জন্য তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে দেশকে সবসময় ভালোবাসবে। দেশের মানুষকে ভালোবাসবে এবং দেশকে গড়ে তোলার জন্য নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করবে।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘নিজের জীবনকে যেমন সুন্দরভাবে গড়ে তুলবে, পাশাপাশি এই দেশকেও গড়ে তুলবে। এই চিন্তাচেতনা যেন সবসময় তোমাদের মাঝে থাকে।’
প্রধানমন্ত্রী গতকাল সকালে গণভবনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ‘দেশব্যাপী সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ-২০১৯’র জাতীয় পর্যায়ের নির্বাচিত ১২ জন সেরা মেধাবীকে পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।
শিক্ষা মন্ত্রী ডা: দীপু মনি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: সোহরাব হোসেইন অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। পুরস্কার বিজয়ী মেধাবী শিক্ষার্থীদের পক্ষে অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী পারশিয়া নাওয়ার অনুষ্ঠানে নিজস্ব অনুভূতি ব্যক্ত করে। দেশের সব সরকারি-বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নিম্ন মাধ্যমিক পর্যায় থেকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে জাতীয় পর্যায়ে মোট ১২ জনকে বছরের সেরা মেধাবী নির্বাচন করা হয়।
ভাষা ও সাহিত্য, দৈনন্দিন বিজ্ঞান, গণিত ও কম্পিউটার এবং বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধÑ এই চারটি ক্যাটাগরিতে এবং তিনটি গ্রুপে ১২ জন মেধাবীকে অনুষ্ঠানে পুরস্কৃত করেন প্রধানমন্ত্রী।
২০১৯ সালের সেরা মেধাবী ১২ জন শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে পুরস্কারস্বরূপ সনদপত্র, মেডেল ও এক লাখ টাকার চেক প্রদান করা হয়।
বেনাপোল-ঢাকা রেলের উদ্বোধন
শার্শা (যশোর) সংবাদদাতা জানান, ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দঘন পরিবেশে উদ্বোধনের পরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করল বেনাপোল-ঢাকা রুটে দেশের প্রথম প্রতিবন্ধীবান্ধব বিরতিহীন ট্রেন ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’। বুধবার বেলা ১২টা ২২ মিনিটে ঢাকার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে উদ্বেধনী অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে নতুন এই ট্রেনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি বলেন, এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংকের অর্থায়নে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা সুদৃঢ় হবে, দেশে বর্তমানে ২২ হাজার মেগাওয়ার্ট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। আগামীতে আমরা বিদ্যুৎচালিত রেল চালানোর উদ্যোগ নিতে পারব। আমাদের দেশ জনবহুল এবং ঘনবসতিপূর্ণ একটি দেশ। জাতির জনক যে স্বপ্ন আশা আদর্শ লক্ষ্য নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিল, তা আমরা আজ বাস্তবায়ন করব। দেশের মানুষ যাতে স্বল্প খরছে যাতায়াত করতে পারে তার জন্য রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো উন্নত করব। তিনি বলেন পদ্মা সেতু হলে ঢাকার সাথে যশোরের রেল চালু হবে।
একই সময় ঢাকা-রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে বর্ধিত বিরতিহীন আন্তনগর ‘বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনও উদ্বোধন করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বাঁশিতে ফুঁ দিয়ে এবং সবুজ পতাকা উড়িয়ে ট্রেন দু’টির শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে যোগ দিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোফাজ্জল হোসেন। এ ছাড়া রেলপথ উন্নয়নের ওপর একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।
এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আলী কদর সাগর। বেনাপোল রেল স্টেশনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন যশোর-১ (শার্শা) আসনের এমপি শেখ আফিল উদ্দিন, যশোর-২ ঝিকরগাছা চৌগাছার এমপি মেজর অবসরপ্রাপ্ত ডা: অধ্যাপক নাসির উদ্দিন, বাংলাদেশ রেলওয়ে মহাপরিচালক শামছুজ্জামান, যশোর জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক শওকাত হোসেন প্রমুখ। উদ্বোধনের পর বেলা সোয়া ১টায় ট্রেনটি বেনাপোল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।