Naya Diganta

প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে এক প্রতিবন্ধী নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণ এবং ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামীর নাম মো. আনিছ (৫২)। সে কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের পিচুরিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল বাছেদের ছেলে।

মামলার অপর আসামী পাশের কুরুয়া গ্রামের রইজ উদ্দিনের ছেলে রাজিব (৩০) পলাতক রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আনিছ সোমবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। পরে ম্যাজিস্ট্রেট তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন নয়া দিগন্তকে জানান, ধর্ষণের শিকার ওই মানসিক প্রতিবন্ধী নারীর বাড়ি কালিহাতী উপজেলার ইছাপুর গ্রামে। গত ১১ জুন সবার অজান্তে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। ১২ জুন রাতে কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের পিচুরিয়া বাজারে সে ধর্ষণের শিকার হন। পিচুরিয়া গ্রামের আনিছ এবং কুরুয়া গ্রামের রাজিব ফুসলিয়ে ওই নারীকে দোকানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিওধারণ করে।

শনিবার (১৫ জুন) খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। ওই নারীর মা-বাবা ও ভাই-বোন কেউ নেই। রোববার (১৬ জুন) ওই নারীর এক মুক্তিযোদ্ধা চাচাতো ভাই বাদী হয়ে আনিছ ও রাজিবকে আসামী করে কালিহাতী থানায় মামলা করেন। সোমবার আনিছকে গ্রেফতার করে আদালতে চালান করা হলে সে ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। পরে ম্যাজিস্ট্রেট থাকে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেন।

ওসি জানান, সোমবার ওই প্রতিবন্ধী নারীকে মেডিকেল চেকাপের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদিন ওই নারীও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী দেন। মামলার অপর আসামী রাজিবকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।