Naya Diganta

নতুন প্রকাশ

তাবেঈদের জীবনচিত্র
ড. আব্দুর রহমান রাফাত পাশা
অনুবাদ : যোবায়ের হোসাইন রাফীকী
প্রকাশক : দারুস সালাম বাংলাদেশ
৩৮/৩, কম্পিউটার কমপ্লেক্স, বাংলাবাজার, ঢাকা
প্রকাশকাল : এপ্রিল ২০১৮
হাদিয়া : ৩৫০ টাকা মাত্র।
ইসলামের ইতিহাসে নবী মুহাম্মদ সা:-এর পর মর্যাদার দিক দিয়ে সাহাবিদের স্থান। এর পরপরই তাবেঈদের অবস্থান। তাবেঈদের জীবন মুসলমানদের জন্য পথিকৃতের ভূমিকা রাখে। ইসলামের খেদমতে তারা বিস্ময়কর ও অতুলনীয় ইতিহাস রেখে যেতে সক্ষম হয়েছেন। তাদের জীবন ও কর্ম জানা এবং তা থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা আমাদের জন্য বিশেষ প্রয়োজন। কারণ, তারা সাহাবিদের সরাসরি দেখেছেন, তাদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেছেন, রাসূলুল্লাহ সা:-এর জীবনাচরণ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন, সে অনুযায়ী জীবন পরিচালনা করেছেন।
সিরিয়ায় জন্মগ্রহণকারী এবং কায়রো ইউনিভার্সিটি থেকে আরবি সাহিত্যে অনার্স, মাস্টার্স ও পিএইচডি অর্জনকারী ড. আব্দুর রহমান রাফাত পাশা র: রচিত বিশ্বখ্যাত গ্রন্থ ‘তাবেঈদের জীবনচিত্র’ গ্রন্থটি। এটি পৃথিবীর নানা ভাষায় ইতোমধ্যে অনূদিত হয়েছে। বাংলা ভাষাভাষী পাঠকদের জন্য সরাসরি আরবি গ্রন্থ থেকে যোবায়ের হোসাইন রাফীকী সেটি অনুবাদ করেছেন।
এ গ্রন্থে ৩৬ জন তাবেঈর জীবনবৃত্তান্ত তুলে ধরা হয়েছে। লেখক অত্যন্ত সহজ সরল ভাষায় ওই তাবেঈদের জীবন অনেকটাই গল্পের ছলে তুলে ধরেছেন। কারো জীবনচিত্র পাঠকের সামনে উপস্থাপনের এ স্টাইলটি অত্যন্ত নান্দনিক ও হৃদয়গ্রাহী। অনুবাদক অনুবাদের ক্ষেত্রে তার সক্ষমতা দেখাতে সক্ষম হয়েছেন বলে মনে হয়েছে। যেমনÑ ‘আমরা এখন হিজরি ৯৭ সালের জিলহজ মাসের শেষ দশকে... বিশ্বের পুরনো এ ঘরটিতে এখন আল্লাহ তা’আলার প্রতিনিধিদের আগমনে অলিগলিতে সাগরের ঢেউয়ের মতো মানুষের ঢল নেমেছে।
তারা কেউ এসেছে হেঁটে কেউ বা আরোহী হয়ে এসেছে নারী, পুরুষ, যুবক, বৃদ্ধ... তাদের মাঝে আছে শ্বেতাঙ্গ, আছে কৃষ্ণাঙ্গ, আছে আরবি, আছে অনারবি... আছে নেতা, আছে কর্মী... তারা সবাই তালবিয়া পাঠ করতে করতে প্রভুভক্তি নিয়ে মানুষের মালিকের কাছে এসেছে। তারা সবাই তাঁর কাছে ক্ষমার আশা নিয়ে এসেছে।’
অফসেট কাগজে ছাপা ৩৮১ পৃষ্ঠার চার রঙ প্রচ্ছদ, বোর্ডবাঁধাই গ্রন্থটি সংগ্রহে রাখার মতো।

হ মোহাম্মদ সালাউদ্দীন