Naya Diganta

এমন দিন সালাহর জীবনে আর এসেছে?

অনেক আনন্দের উপলক্ষ নিয়ে তার জন্য হাজির হয়েছে দিনটি

মোহাম্মদ সালাহর জীবনে আজকের দিনটির মতো দিন কি আগে আর এসেছে? আজ যে অনেক আনন্দের উপলক্ষ নিয়ে তার জন্য হাজির হয়েছে দিনটি। ঈদ, জন্মদিন, বিশ্বকাপ অভিষেক-এই তিনটি বড় উপলক্ষ আজ একদিনেই হাজির হয়েছে সালাহর জন্য।

মিসরীয় সুপারস্টার মোহাম্মদ সালাহ আজ উরুগুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামবেন কিনা সেটি নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে ভক্তদের মাঝে। তবে মিসরের কোচ জানিয়েছেন, সালাহ শতভাগ ফিট হয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছেন আজ। আর সেটি হলে নিজের ২৬তম জন্মদিনেই হবে তার বিশ্বকাপ অভিষেক।

১৫ জুন সালাহর জন্মদিন। ১৯৯২ সালের এই দিনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন মিসরের এক মফস্বল শহরে। সেই সালাহ আজ বিশ্ব ফুটবলের মহাতারকা। এরই মধ্যে আবার চলছে ঈদের আনন্দ। এমন আনন্দের দিনেই সালাহর অভিষেক হচ্ছে স্বপ্নের বিশ্বকাপে। যে কোন ফুটবলারের জন্য বিশ্বকাপ খেলা সবচেয়ে বড় আনন্দ।

তাই এবারের জন্মদিনটা সালাহর জীবনের ব্যতিক্রমী একদিন। জন্মদিনে সাধারণত সবাই উপহার পান বন্ধু, প্রিয়জনদের কাছ থেকে। কিন্তু এবারের জন্মদিনে পুরো মিসরবাসী উল্টো সালাহর কাছ থেকে পেতে চাইবে উপহার। আর সেই উপহার হতে পারে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দারুণ এক জয়। এই ম্যাচে জয় পেলে এর চেয়ে জন্মদিনের উপহার হয়তো সালাহর জন্যও আর কিছু হবে না। সালাহ কি পারবেন কোটি কোটি সমর্থক ও নিজেকে জন্মদিনের এই উপহার দিতে। জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েক ঘণ্টা।

 

কতটা ফিট হয়ে নামতে পারবেন সালাহ
বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ মাঠে নামবে আফ্রিকার দল মিসর। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ছয়টায় ইকাতেরিনবার্গ শহরে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। এই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন লাতিন আমেরিকার দল উরুগুয়ে। দীর্ঘ ২৮ বছর পর বিশ্বকাপ খেলার আনন্দে মিসরবাসীর যখন নাচার কথা থাকলেও তারা আছে শঙ্কায়। শঙ্কাটা দলের সবচেয়ে বড় তারকা মোহাম্মাদ সালাহকে নিয়ে। শুধু দল নয়, বর্তমান বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফুটবলারদেরই একজন মোহাম্মাদ সালাহ।

গত ম্যাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসের বেআইনি ট্যাকলের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় সালাহকে। সেই থেকে মাঠের বাইরে এই সুপারস্টার। বিশ্বকাপে খেলাই পড়ে গিয়েছিলো শঙ্কায়। তবে আশার কথা হচ্ছে দ্রুততার সাথে সুস্থ হয়ে উঠেছেন সালাহ। আজ তার মাঠে নামার সম্ভাবনাও রয়েছে। তবে শতভাগ ফিট সালাহকে পাওয়া যাবে কিনা সেটি নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

তবে মিসরের কোচ হেক্টর কুপার জানিয়েছেন, শুক্রবার তার এই প্রিয় শীর্ষ শতভাগ ফিট হয়েই মাঠে নামবেন। বিবিসিকে কুপার বলেন, ‘আমি আপনাদের পুরোপুরি নিশ্চয়তা দিতে পারি যে সে একশো ভাগ ফিট হয়ে আজ খেলবে। শেষ মূহুর্তে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটলে তাকে আমরা পাচ্ছি।’

মিসরীয় কোচ আরো বলেন, তার সামর্থ রয়েছে সেরা গোলদাতা হওয়ার, সে সেরা সেরা খেলোয়াড়দের একজন। সে এখন পুরোপুরি সুস্থ, খুব দ্রুত সেরে উঠেছেন।
কোচ আরো বলেন, চিকিৎসরা খেলার বিষয়টি তার ইচ্ছার ওপরই ছেড়ে দিয়েছেন। তবে আমার মনে হয় সে ভীত নয়, আমরা তাকে আত্মবিশ্বাসী করার চেষ্টা করছি।