Naya Diganta

মাদক নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

সরকার মাদকদ্রব্যের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। সংসদীয় কমিটি এই নীতিকে সাধুবাদ জানায়। এদেশের মানুষ যাতে মাদবদ্রব ও সন্ত্রাসের মতো কাজে জড়াতে না পারে সেই ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সুপারিশ করেছে কমিটি।
রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৩৮তম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়েছে। কমিটির সভাপতি মো. জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, এ এম নাইমুর রহমান, মো. নুরুল ইসলাম তালুকদার, আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী বৈঠকে অংশ নেন।
বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, মাদকরোধে ১১২০টি জনসচেতনতামূলক কর্মশালা আয়োজন করেছে সরকার। যুবকদের অংশগ্রহণে এই কর্মশালায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী কর্মকান্ডে ভূমিকা রাখার প্রতিও জোর দেয়া হবে।
বৈঠকে জানানো হয়, মাদক প্রতিরোধে যুব উন্নয়ন অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে প্রতিটি জেলায় ২টি, উপজেলায় ২টি, প্রধান কার্যালয়ে ২টি কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে ২টি কর্মশালা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এছাড়াও মাদক প্রতিরোধকল্পে যুব সমাবেশ, র‌্যালি, মানববন্ধন ও অন্যান্য জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম চলমান রয়েছে।
বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে নারীদের সাফল্যকে ধরে রাখা এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আরও সফলতার স্বাক্ষর রাখার জন্য আন্তর্জাতিক মানের কোচ, ফিজিও রাখাসহ তাদের উন্নত নিউট্রেশন ব্যবস্থা এবং জিমনেশিয়াম ব্যবহারের প্রতি আরও নজরদারি বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়।