১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সেই ডিসির আপত্তিকর ভিডিও’র তদন্ত শুরু

তদন্ত শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বেরিয়ে আসছেন তদন্ত কমিটির সদস্যরা - নয়া দিগন্ত

সদ্য ওএসডি হওয়া জামালপুরের সাবেক জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের আপত্তিকর নারী কেলেঙ্কারির ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব ড. মুশফিকুর রহমানকে আহ্বায়ক করে গঠিত পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির সদস্যবৃন্দ বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) সকালে জামালপুর এসে তদন্ত কার্যক্রম শেষে বিকেলে ঢাকায় ফিরে গেছেন। তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ড. মুশফিকুর রহমান ছাড়া কমিটির বাকি সদস্যদের নাম সাংবাদিকদের জানাতে অস্বীকৃতি জানানো হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

জানা গেছে, পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির সদস্যরা বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যান। তারা প্রথমেই নবাগত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হককে সাথে নিয়ে সাবেক জেলা প্রশাসকের সেই সমালোচিত খাসকামরাটি পরিদর্শন করেন। তারা প্রায় আধাঘণ্টা সময় ধরে ওই খাসকামরার ভেতরে খাটের বিছানাসহ অন্যান্য আসবাবপত্রের আলামত পর্যবেক্ষণ করেন। কমিটির সদস্যদের একজন মোবাইল ফোনে খাসকামরাটির ভেতরের কিছু ছবিও ধারণ করেন। তারা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিসিটিভি ক্যামেরার কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং সম্পর্কেও তথ্য সংগ্রহ করেন।

পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বসে তদন্তের অন্যান্য দিকগুলো নিয়ে দুপুরে ১২টা থেকে তিনটা পর্যন্ত টানা বৈঠক করেন তদন্ত কমিটির সদস্যরা। ওই বৈঠকের শুরুতেই প্রায় দেড়ঘণ্টা সময় ধরে সমালোচিত সেই অফিস সহায়ক সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার জবানবন্দি গ্রহণ করেন তারা। দুপুরে পৌনে ২টার দিকে সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা সেই সম্মেলন কক্ষ থেকে বেরিয়ে যান। পরে তিনি নিচতলায় জেলা প্রশাসনের ই-সেবা তথ্যকেন্দ্রের একজন নারীকর্মীর কাছে একজন চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্রসহ আরো পাঁচদিনের ছুটি বর্ধিত করার আবেদন জমা দেন। এরপর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বেরিয়ে রিকশা দিয়ে চলে যান তিনি। এর আগে তিনি গত সোমবার (২৬ আগস্ট) জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে কর্মস্থলে উপস্থিত হয়ে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে তিনদিনের ছুটির আবেদন করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকের মাধ্যমে উপস্থিত সাংবাদিকরা তদন্ত কমিটির সাথে কথা বলার জন্য প্রস্তাব দেন। তদন্ত কমিটির কেউ এই মুহূর্তে সাংবাদিকদের সাথে কোনো কথা বলবেন না বলে জানিয়ে দেন জেলা প্রশাসক।

এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ড. মুশফিকুর রহমানসহ কমিটির অন্য সদস্যরা সভাকক্ষ থেকে বেরিয়ে সার্কিট হাউজে চলে যান। পরে বিকেলে তদন্ত কমিটির সবাই ঢাকার উদ্দেশ্যে সার্কিট হাউজ ত্যাগ করেন।

এ ব্যাপারে নবাগত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব ড. মুশফিকুর রহমানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির সবাই এসেছিলেন। তারা তাদের তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করে আজ বৃহস্পতিবারই ঢাকায় ফিরে গেছেন। তবে তদন্তের স্বার্থে প্রয়োজনে তারা আবারো জামালপুরে আসতে পারেন বলে জানিয়েছেন।’

প্রসঙ্গত, গত রোববার (২৫ আগস্ট) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব (জেলা ও মাঠ প্রশাসন অধিশাখা) ড. মুশফিকুর রহমানকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে কমিটিকে ১০ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

ওই তদন্ত কমিটিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের একজন প্রতিনিধি, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) একজন প্রতিনিধিকে সদস্য এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন শৃঙ্খলা অধিশাখার একজন উপসচিকে তদন্ত কমিটির সচিব করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

ফাঁসির রায় শুনে আসামি হাসে বাদি কাঁদে (১১৮৭৬৬)শোভন-রাব্বানীকে নিয়ে ঢাবি অধ্যাপকের ফেসবুক স্ট্যাটাস (৪৮৭৫২)নতুন ভিডিও : রক্তাক্ত রিফাতকে মিন্নি একাই হাসপাতালে নিয়ে যান (৩২২৫১)শোভনকে নিয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা মামুনের ফেসবুক স্ট্যাটাস (২৭১৯০)খালেদা জিয়া আলেমদের কিছু দেননি, শেখ হাসিনা সম্মানিত করেছেন : আল্লামা শফী (১৮০১৫)ওমরাহর খরচ বাড়ছে, সৌদি ফি নিয়ে ধূম্রজাল (১৭১৩৭)পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হলে দিলিপ ঘোষকে যশোহর পাঠিয়ে দেবো (১৬৮৮৩)এবার আমিরাতের জাহাজ আটক করলো ইরান (১৩৩৭২)‘মানুষকে যতটা আপন মনে হয় ততটা আপন নয়’ (১৩১৮০)নতুন ভিডিও : রক্তাক্ত রিফাতকে মিন্নি একাই হাসপাতালে নিয়ে যান (১২৮২২)