২৪ জুলাই ২০১৯

ময়মনসিংহে নিখোঁজের ৩ দিন পর যুবলীগকর্মীর লাশ উদ্ধার

-

তিন দিন নিখোঁজের পর ময়মনসিংহ নগর যুবলীগের কর্মী শফিকুল ইসলাম শপুর (২৫) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর আকুয়া হাবুন বেপারির মোড় এলাকার একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মুনসুর আহমেদ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শফিকুল ইসলাম নগরীর আকুয়া বাঁশবাড়ি কলোনীর বাসিন্দা ছিলেন। সে সাত বছর আগে মাহমুদাকে বিয়ে করেন এবং বাঁশবাড়ি কলোনিতে মায়ের সাথে থাকতেন। তাদের চার বছর বয়সী একটি সন্তান রয়েছে। দুই বছর আগে শফিকুল ইসলাম আকুয়া হাবুন বেপারির মোড় এলাকার যুবলীগ নেতা মরহুম আজাদ শেখের ছোট বোন আফরোজা শেখ ইতিকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই ইতি তার স্বামী শফিকুলকে বড় স্ত্রী মাহমুদার কাছে যেতে দিতেন না। মাঝে মধ্যে লুকিয়ে বড় স্ত্রী মাহমুদার সাথে দেখা করতেন শফিকুল।

গত ১১ জুন রাতে আফরোজা শেখ ইতি তার স্বামী শফিকুল ইসলাম শপু নিখোঁজ হওয়ার কথা উল্লেখ করে কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন (৬৭৬)। এতে বলা হয় যে, ১০ জুন রাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে যাবার পর শফিকুল আর বাসায় ফিরে আসেনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে ইতির বাসা সংলগ্ন কচুক্ষেতের ডোবায় মরদেহ পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। মরদেহ উদ্ধারের পর থেকে ছোট স্ত্রী আফরোজা শেখ ইতি ও তার ভাই পলাতক রয়েছে।

এ ব্যাপারে শফিকুলের মা ছোট স্ত্রী আফরোজা শেখ ইতি ও তার পরিবারের সদস্যদের আসামি করে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানান, নিহত যুবলীগকর্মী শফিকুল ইসলাম এক বছর আগে প্রতিপক্ষের হাতে নিহত মহানগর যুবলীগ নেতা আজাদ শেখের ভগ্নিপতি। 


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi