২২ জুন ২০১৮

খালেদা জিয়ার কিছু হলে দায় সরকারের: সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স

সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স -

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার দাবি জানিয়ে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেছেন, খালেদা জিয়ার কিছু হলে দায়-দায়িত্ব সরকারকেই বহন করতে হবে।

রোববার হালুয়াঘাট পৌরসভা, সদর, জুগলী, কৈচাপুর ও গাজীরভিটা ইউনিয়নের রাজনৈতিক ও পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্মানে বিএনপি আয়োজিত ইফতার মাহফিল উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন। তিনি বলেন, নির্জন কারাগারে দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকলেও চাহিদা মতো চিকিৎসা না দিয়ে সরকার বেগম খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে।

হালুয়াঘাট সানফ্লাওয়ার মডেল স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগি সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী, আলেম, ওলামা, ব্যাবসায়ী, শিক্ষক, সাংবাদিক, আদিবাসী, হিন্দু ও এনজিও কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

হালুয়াঘাট উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি প্রবীন নেতা অধ্যাপক এ কে এম এনায়েত উল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স আরো বলেন, সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচনে ভয় পায় বলেই বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় ফরমায়েশী রায় দিয়ে অন্যায়ভাবে আটক রেখে আবারও একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু এবার তা বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না। তিনি সকলকে যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে প্রস্তুতি নেয়ারও আহ্বান জানান।

এসময় উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আসলাম মিয়া বাবুল, আবু হাসনাত বদরুল কবীর, অধ্যাপক আমজাদ আলী, আলী আশরাফ, জয়নাল আবেদিন ফকির, কাজী ফরিদ আহমেদ পলাশ, আব্দুল আজিজ খান, সুলতান মহিউদ্দিন, ইসহাক আলী মাস্টার, মিজানুর রহমান মিজান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা খাতুন ময়না, হোসনে আরা নীলু, রেজাউল করিম, রফিকুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন, মইনউদ্দিন বাবুল, আব্দুস সাত্তার, মোশাররফ হোসেন, রুহুল আমিন খান, আব্দুস সালাম, আসাদুজ্জামান আসিফ, আব্দুল গণি, আব্দুল লতিফ, আব্দুল জলিল, নুরুজ্জামান হেলাল উপস্থিত ছিলেন।

 


আরো সংবাদ