২১ অক্টোবর ২০১৮

ময়মনসিংহে ছুরিকাঘাত-গুলি : নিহত ২

-

মাদকের টাকা না দেয়ায় ময়মনসিংহে শহরে নওমহল এলাকায় দিনদুপুরে মাদকাসক্তের ছুরিকাঘাতে এসিআই কর্মকর্তা মোফাজ্জল হোসেন (৪৭) এবং পুলিশের গুলিতে ছুরিকাঘাতকারি নিটোল (৩০) নিহত হয়েছে। এর আগে নিটোলের ছুরিকাঘাতে পুলিশ কনস্টেবল আবুল হোসেন আহত হন। তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ডিবির ওসি আশিকুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার দিকে শহরের নওমহল এলাকায় এসিআই কোম্পানীর এরিয়া ম্যানেজার মোফাজ্জল হোসেন বাসায় যাওয়ার পথে চিহ্নিত ছিনতাইকারি নিটোলের উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে আহত হন। তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মোফাজ্জল হোসেনের বাড়ি রাজশাহী জেলায়। সে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নওমহল এলাকায় বসবাস করতেন।
খবর পেয়ে কোতোয়ালী থানা পুলিশের এসআই বিজন ও কনস্টেবল আবুল হোসেন ঘটনাস্থলে পৌঁছলে মাদকাসক্ত নিটোল মোটরসাইকেলে বসে থাকা কনস্টেবল আবুল হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ডিবি ও কোতোয়ালী থানা পুলিশের একাধিক দল গোটা এলাকা ঘেরাও করে রাখে। এক পর্যায়ে ডিবি পুলিশের একটি দল নিটোলকে আটকের চেষ্টা করলে দৌড়ে পালানোর সময় পুলিশের গুলিতে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।
এদিকে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, শহরের বাঁশবাড়ি কলোনি এলাকার ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রাজ্জাকের মাদকাসক্ত ছেলে নিটোলের অত্যাচারে নওমহল ও বাঁশবাড়ি কলোনি এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলো। মাদকের টাকা চাওয়া নিয়ে নওমহল এলাকার ভাড়াটিয়া এসিআই ফার্মাসিউটিক্যালসের এরিয়া ম্যানেজার মোফাজ্জ্বল হোসেনের সাথে বুধবার নিটোলের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। এনিয়ে সালিশও হয়েছে। নিহত মোফাজ্জ্বল হোসেনের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুরে।


আরো সংবাদ