১৬ জুলাই ২০১৯

বিচার চেয়ে কাঁদলেন কণ্ঠশিল্পী মিলা

সংবাদ সম্মেলনে মিলা - ছবি : নয়া দিগন্ত

স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির অকথ্য নির্যাতনের ন্যায়বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জনপ্রিয় পপ গানের কণ্ঠশিল্পী মিলা। এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। গতকাল বিকেলে রাজধানীর বেইলি রোডের একটি রেস্তোরাঁয় তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মিলার বাবা অবসরপ্রাপ্ত লেফটন্যান্ট জেনারেল শহিদুল ইসলাম, মা ও ছোট বোন দিশা।

সংবাদ সম্মেলনে মিলা বলেন, আজ আমি ও আমার পরিবার আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি। আমার ভালো-খারাপ সব সময়ের সাক্ষী আপনারাই। তাই ন্যায়বিচার পেতে আপনাদের সবাইকে আমার পাশে থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে মিলা বলেন, আমার সাথে তখনো ডিভোর্স হয়নি পারভেজ সানজারির। কিন্তু তখনই আমার সহকর্মী হিল্লোল ভাইয়ের স্ত্রী নওশীনের সাথে তার সম্পর্ক ছিল। তারা ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে অশ্লীল ছবি আদান-প্রদান করত।

তিনি বলেন, আমি বিষয়টি জানার পর নওশীনকে কল দেই তখন সে বলে, একজন পাইলটের সাথে পরিচয় থাকতেই পারে। তখন তাকে আমি ধমকের সুরে বলি তুমি কি পাইলট যে, পাইলটের সাথে সম্পর্ক থাকবে? আর নরমাল সম্পর্ক থাকলে কিভাবে ম্যাসেঞ্জারে খোলামেলা ছবি পাঠাও?

এ দিকে মিলা তার সংসার ভাঙার জন্য নওশীনের পাশাপাশি বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলের এক নারী কর্মকর্তাকেও দায়ী করেন।

২০১৭ সালের মে মাসে পারিবারিকভাবে বৈমানিক পারভেজ সানজারির সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মিলা। বিয়ের পর সঙ্গীত সাধনায় হয়ে পড়েন অনিয়মিত। জড়িয়ে যান সংসার জীবনের দ্বন্দ্ব-বিবাদে। নারী নির্যাতন-যৌতুকের অভিযোগ এনে স্বামী সানজারির বিরুদ্ধে মামলাও করেন তিনি। সবশেষ সংসার জীবনের ইতি টানেন পপ গানের এই শিল্পী।


আরো সংবাদ

ধোনিকে অবসরের পরামর্শ বোর্ডের?‌ রবি শাস্ত্রীকে বাদ দেয়া হচ্ছে? পারিবারিক দ্বন্দ্ব : কোন দিকে যাবে এরশাদ-পরবর্তী জাতীয় পার্টি? হজযাত্রী রিপ্লেসমেন্ট সুবিধার অপেক্ষায় এজেন্সি মালিকেরা বেসরকারি টিটিসি শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবিতে স্মারকলিপি কলেজ শিক্ষার্থীদের শতাধিক মোবাইল জব্দ : পরে আগুন ধর্ষণসহ নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির কমিটি রাজধানীতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নারীসহ দু’জন নিহত রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের

সকল




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi