১৮ আগস্ট ২০১৯

বিয়ে-ডিভোর্স-বিয়ে, এবার কী করবেন সালমা

মৌসুমী আক্তার সালমা - সংগৃহীত

একটি সঙ্গীত প্রতিযোগীতায় প্রথম হয়ে রাতারাতি তারকাবনে যান সঙ্গীত শিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা। বিভিন্ন অ্যালবাম আর মঞ্চে গান পরিবেশন করে হঠাৎ তারকা হওয়াটা যে ভুল ছিল না সেটারও প্রমান রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু ২০১১ সালে বিয়ের পর থেকেই ছন্দপতন শুরু। আগের মতো গানে তাকে আর পাওয়া যায় না। তখন বলা হয়েছিল পরিবারে সময় দেয়ার কারণে গানে সেভাবে মনোযোগ দিতে পারছেন না সালমা। বিয়ের বছর পার হতেই কোলজুড়ে আসে সন্তান। নাম রাখা হয় স্নেহা। গানে না পাওয়া গেলেও সংসারে তার মনোযোগ সেটা দেখেই তৃপ্তির ঢেকুর তুলে ছিলেন শ্রোতা ও ভক্তরা। কিন্তু ২০১৬ সালের শেষ দিকে এসে তার সংসার ভাঙ্গে। স্বামি শিবলী সাদিককে ডিভোর্স দেন তিনি। চলতি বছরের শুরুতে খবর আসে তার দ্বিতীয় বিয়ের। গণমাধ্যমকে সালমা জানান ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়েছে। এর পর দ্বিতীয় স্বামি সানাউল্লাহ নূরের সাথে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে দেখা গেছে তাকে।

কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে আবার সংবাদের শিরোনামে সালমার বিয়ে। নতুন স্বামির সাথে সালমার কোন সমস্যা হয়নি। বিবাদটা তার স্বামির আরেক বিয়ে নিয়ে। কক্সবাজারের মেয়ে সনিয়া মুনিয়াত সানাউল্লাহ নুরকে তার স্বামি দাবি করে। এ নিয়ে মুনিয়াতের মা দিরারা খানম বাদী হয়ে কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ একটি মামলা দায়ের করেন।

গণমাধ্যম না জানলেও সালমা নাকি স্বামির আগের বিয়ের কথা ঠিকই জানতেন। প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া ছেলেরা দ্বিতীয় বিয়ে করতে পারে না। বাংলাদেশের আইনে এটা বলবদ আছে। এ বিষয়ে সালমান বললে, আমি যতটুকুন জানি, সানাউল্লাহ তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়েছে। যেহেতু তাদের তালাক হয়ে গেছে। তাই আমি আর এই বিষয়ে কোন কিছু জানতে চাইনি।

সালমা বলেন, ‘সাগরের বিরুদ্ধে তার প্রথম স্ত্রীর অভিযোগগুলো শুনলাম। সাগরের অতীত নিয়ে আমার কথা বলা কি ঠিক হবে? সাগর বর্তমানে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছে। ও দেশে এসেই এ বিষয়ে কথা বলবে এবং ব্যবস্থা নেবে।’

সালমা বলেন, ‘বিয়ে সম্পর্কে সাগর আমাকে বলেছে, এটা তার জীবনের একটা দুর্ঘটনা। সঙ্গে এও বলেছে, প্রায় এক বছর আগে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা জানেন, সাগর একজন অ্যাডভোকেট। আইনের উপর তার শ্রদ্ধা এবং জ্ঞানও আছে। আইনি সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেই সে তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়েছে এবং দ্বিতীয় বিয়ে করেছে। একটা সাধারণ মানুষ বিয়ে, বিচ্ছেদ, দ্বিতীয় বিয়ে করতেই পারে। বিষয়গুলো সঠিকভাবে সম্পন্ন হলে, এ নিয়ে কোনো কথাই হয় না। সাগরের এই বিষয়টি নিয়েও কোনো আলোচনা হওয়ার কথা ছিল না। যদি আমি যুক্ত না থাকতাম। আমি সালমা বলেই এত কথা।’

প্রথম স্ত্রীর পক্ষ থেকে অভিযোগ এসেছে, সাগর পলাতক আছেন এবং গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। এছাড়াও তিনি প্রথম স্ত্রীকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতেন? সালমা বলেন, ‘আমি গোপনে বিয়ে করিনি। সংবাদ সম্মেলন করে বিয়ের কথা জানিয়েছি। আর সাগরও পলাতক না, সংবাদিক বন্ধুরা এটা ভালো করেই জানেন। সাগর যে ক’দিন দেশে ছিলেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমার সঙ্গেই ছিলেন। আর যৌতুক ও নির্যাতনে বিষয়টা গতকালই দেখলাম, ইউটিউব ও ফেসবুকে সাগর ও তার প্রথম স্ত্রীর বেশ কিছু রোমান্টিক ছবি ঘুরে বেড়াচ্ছে। ছবিগুলো দেখে মনে হয়নি, কেউ নির্যাতিত হয়েছে। আসলে এ বিষয়গুলো নিয়ে সাগরের কথা বলাই ভালো। আশা করি, খুব জলদি এর উত্তর মিলবে।’

সালমা আরও জানান, প্রথম স্ত্রীর পক্ষ থেকে দায়ের করা মামলা ও অভিযোগ নিয়ে সোমবার রাতে স্বামীর সাথে কথা বলেছেন সালমা। সত্য-মিথ্যা প্রকাশ্যে আনতে সাগর খুব শিগগিরই দেশে আসছেন।


আরো সংবাদ




bedava internet