২১ আগস্ট ২০১৯

গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে বাংলাদেশে হাবিব ওয়াহিদ

হাবিব ওয়াহিদ - সংগৃহীত

আমেরিকার ন্যাশনাল আক্যাডেমি অফ রেকর্ডিং আর্টস এন্ড সাইন্সেস কর্তৃক প্রবর্তিত বার্ষিক পুরস্কার যা সঙ্গীত শিল্পে অসাধারণ কৃতিত্ত্বের প্রদান করা হয় গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের লস অ্যাঞ্জেলস শহরের স্টেপলস সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে এই সম্মাননার ৬১তম আসর। এই আসরে বাংলাদেশ থেকে আমন্ত্রণ পেয়েছেন জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী হাবিব ওয়াহিদ। এজন্য শুক্রবার (৮ ফ্রেব্রুয়ারি) রাত ১০টায় দেশ ছেড়েছেন হাবিব।

যুক্তরাষ্ট্রে রওয়ান হওয়ার আগে হাবিব বলেছেন, প্রতি বছর কাইনেটিক মিউজিকের আমন্ত্রণে বাংলাদেশ থেকে একজন সঙ্গীতশিল্পী গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে যাওয়ার প্রস্তাব পেয়ে থাকেন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার তাদের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান উপভোগ করতে যাচ্ছি। ভালোই লাগছে, এমন একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে যাচ্ছি ভেবে।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠান শেষে পাঁচ-ছয় দিন সেখানে বিশ্রাম নেবেন হাবিব। এরপর ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার উদ্দেশে রওনা করবেন। দুই দিনের যাত্রা শেষে ১৮ ফেব্রুয়ারি দেশে ফিরছেন তিনি।

এদিকে কিছুদিন আগে গ্র্যামির ৬১তম আসরের বিজয়ীদের একটি তালিকা (ভুয়া) প্রকাশ পায়। পরে আয়োজক সূত্র জানায়, গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড শুরুর আগ পর্যন্ত বিজয়ীদের তালিকা কোথাও প্রকাশ করা হয় না। এমনকি রেকর্ডিং একাডেমির সদস্যদের সাথেও নয়।

গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড, ১৯৫৮ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি বার্ষিক অনুষ্ঠান যা মূলত সঙ্গীত শিল্পে অসাধারণ কৃতিত্ত্বের জন্য প্রদান করা হয় এবং একে গ্রামোফোন এ্যাওয়ার্ড হিসেবেও সম্বোধন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল আকাডেমি অব রেকর্ডিং আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস কর্তৃক প্রদত্ত এ পুরস্কার প্রদানের ক্ষেত্রে ‘অ্যালবাম বিক্রি বা চার্টের অবস্থান নয় বরং শৈল্পিক এ স্বীকৃতির ক্ষেত্রে প্রাযুক্তিক দক্ষতা, সর্বোপরি রেকর্ডিং শিল্পের সার্বিক শ্রেষ্ঠত্ব বিবেচনা করা হয়ে থাকে’।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet