২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মেয়ে নিকাব পরায় সমালোচনার মুখে এ আর রহমান

মঞ্চে এ আর রহমানের সাথে তার কন্য খাদিজা। এই পোশাকের কারণেই শুনতে হচ্ছে সমালোচনা - ছবি : সংগ্রহ

আলোচিত ছবি স্লামডগ মিলিয়নিয়ারের দশ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজন করা হয়েছিল এক অনুষ্ঠানের। সেই অনুষ্ঠানের মঞ্চে নেকাব পরে হাজির হয়েছিলেন ওই ছবির অস্কার জয়ী সঙ্গীত পরিচালক এআর রহমানের মেয়ে খাদিজা। আর এতেই শুরু হয়েছে সমালোচনা।

অনেক সামাজিক যোগাযোগ ব্যবহারকারী এতে ক্ষিপ্ত হয়েছে এ আর রহমানের ওপর। অনেকেই বাজে মন্তব্য করেছেন তার ও তার পরিবার সম্পর্কে। কিন্তু এসবকে পাত্তা দিতে নারাজ এআর রহমান পরিবার। তিনি মেয়ের পক্ষ নিয়ে বলেছেন, ইচ্ছেমতো পোশাক পরিধান করার স্বাধীনতা রয়েছে আমার পরিবারের সবার। আমরা এতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করি।

এরপর পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে তিনি টুইটারে আরো একটি ছবি শেয়ার করেছে তার পরিবারের সদস্যদের। যেখানে দেখা গেছে নীতা আম্বানির সাথে তার মেয়ের নিকাব পরা ছবি। সেই ছবির সাথে ক্যাপশনে এই সঙ্গীত লিজেন্ড লিখেছেন, ‘আমার পরিবারের প্রিয় মহিলা সদস্য খাদিজা, রহিমা ও সাইরা- নীতা আম্বানির সাথে।’

স্লামডগ মিলিয়নিয়ারের অস্কার বিজয়ের দশ বছর পূর্তি উপলক্ষে একটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল মুম্বাইয়ে। অনুষ্ঠানের একেবারে শেষ দিকে মঞ্চে আসেন এ আর রহমানের কন্যা খাদিজা। এ আর রহমানই তাকে আমন্ত্রণ জানান সাক্ষাৎকার নেয়ার জন্য। লাল পাড়ের কালো শাড়ি আর মুখ ঢাকা নেকাব পড়ে মঞ্চে হাজির হন খাদিজা। এরপর কিছু মজার প্রশ্ন করে বাবার সাক্ষাৎকার নেয় খাদিজা।

আর এতেই ক্ষিপ্ত হয় অনেকে। খাদিজার পোশাককে রক্ষণশীল আখ্যা দিয়ে নানা বাজে মন্তব্য চলতে থাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কেউ বলেন এটি এ আর রহমান পরিবারের ডাবল স্ট্যান্ডার্ড। 

তবে এতে দমে যায়নি রহমান পরিবার। তারা নিজেদের রুচি ও পছন্দকে শ্রদ্ধা করার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানায় এবং নিজেদের অবস্থানের পক্ষে জোরালো বক্তব্য দেয়। পরদিন পাল্টা হিসেবে রিলায়েন্স গ্রুপের মালিক মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতা আম্বানির সাথে মেয়ের নিকাব পরা ছবিটি শেয়ার করেন টুইটারে। সেই পোস্টেও আক্রমণের শিকার হয়েছেন এ আর রহমান। অনেকেই তার উদ্দেশ্যে বাজে মন্তব্য করেছেন এই পোস্টে এসে।

এ আর রহমানের মেয়ে খাদিজাও ফেসবুকে বড় এক পোস্টে নিজের পোশাকের পক্ষে জোরালে অবস্থান তুলে ধরেছেন। খাদিজা লিখেছেন, পোশাকের কারণে অনেক প্রতিক্রিয়া দেখছি। অনেকেই বলেছেন, এটি আমাকে আমার বাবা-মা জোর করে পরিয়েছেন এবং এটি ডাবল স্ট্যান্ডার্ড। এর কোনটিই সত্যি নয়। আমি নিজের পছন্দ মতো পোশাক অবশ্যই পরতে পারি। একজন প্রাপ্ত বয়স্ক হিসেবে নিজের জন্য কিছু পছন্দ করার অধিকার আমার রয়েছে। এবং প্রত্যেক মানুষেরই তা থাকা উচিত। তাই না বুঝে বিচার করবেন না দয়া করে।

প্রসঙ্গত ২০০৮ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ব্রিটিশ সিনেমা স্লামডগ মিলিয়নির দিয়ে আলোচনায় আসেন সঙ্গীত পরিচালক এ আর রহমান। ছবিটি ব্যাপক ব্যবসায় সফল হয়। ছবিটিতে সঙ্গীত পরিচালনার জন্য তিনি অস্কার পুরস্কার লাভ করেন। মুম্বাইয়ে বস্তির এক কিশোরের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছিল ছবিটি। সূত্র: জি নিউজ ও এক্সপ্রেস ট্রিবিউন


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme