২৩ অক্টোবর ২০১৮

সৌদিতে সিরিয়ান শিল্পীর ঈদ কনসার্ট

সিরিয়ান শিল্পী আসালা নাসরি - সংগৃহীত

প্রথমবারের মতো সৌদি আরবে গান পরিবেশ করবেন জনপ্রিয় সিরিয়ান শিল্পী আসালা নাসরি। আগামি ২০ জুন সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে শুধুমাত্র মেয়েদের জন্য এই কনসার্ট অনুষ্ঠিত হবে।

সরাসরি গান পরিবেশনের ক্ষেত্রে নাসরির আরবজুড়ে খ্যাতি রয়েছে। তাই ঈদ কনসার্টে রিয়াদ কিং ফাহাদ কালচারাল সেন্টার (কেএফসিসি)-এ ব্যপক সংখ্যক আরব দর্শক-শ্রোতা সমাবেত হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে নিজের টুইটার পেজে রিয়াদ যাওয়ার কথা জানিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন নাসরি। গানের পাশাপাশি টিভি উপস্থাপক হিসাবেও তার পরিচিতি রয়েছে। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘বরাবারই রিয়াদ আমার আত্মাকে নতুন করে গঠন করে, তাছাড়া সেখানে আমার পরিবার রয়েছে। আমি যখন গাইতে শুরু করি, আমার কণ্ঠস্বর আমার হৃদয়কে নাড়া দেয়, কারণ এরমাধ্যমে আমি শৈশবে পৌঁছে যাই এবং শ্রোতাদের সাথে একটা হৃদ্যতা তৈরী করতে পারি।’

এ সম্পর্কে কেএফসিসি’র টেকনিক্যাল ম্যানেজার মোসাদ আল-মিখলিফি বলেছে, ‘নাসরির ভক্তরা তার যাদুমাখা কণ্ঠ শোনার জন্য অধির আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছে।’ তিনি বলেন, ‘জেনারেল এন্টারটেইনমেন্ট অথরিটি (জিইএ) এবং সংস্কৃতির সাথে সংশ্লিষ্ট সরকারি বিভিন্ন সংস্থা কনসার্ট সফল করার জন্য বিশ্বমানের সাউন্ড, লাইট এবং প্রযুক্তিগত সুবিধা সরবরহ করেছে।’

কিং সউদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আদিল্লাহ আল-আসকার। তিনি বলেন, ‘আমি এই কনসার্টে অংশ নিতে পারবো এটা ভাবতেই অনেক ভালো লাগছে, কারণ নাসরি আমার প্রিয় আরব গায়িকা।’

এই গায়িকা আল-হায়ত টিভিতে ‘সৌলা’ নামের একটি অনুষ্ঠান করেও বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। এছাড়া দুবাই টিভিতে একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন, যেখানে তার অতিথি খাকেন বিভিন্ন শিল্পীরা।

নাসরির সর্বশেষ অ্যালবাম প্রকাশ হয়েছিল ২০১৭ সালে। নাম ‘মহম্মা বেল তফাজ্জল’। অ্যালবামটি বছরজুড়ে আরবের টপ লিস্টে থাকার পাশাপাশি নাসরিকে দিয়েছে ‘সেরা আরব শিল্পীর পুরস্কার’এর স্বীকৃতি।

২০১১ সালে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর নাসরি বাহরাইনের জাতীয়তা গ্রহণ করেন এবং সিরিয়ার বিদ্রোহীদের পক্ষ নিয়ে প্রেসিডেন্ট আসাদের বিরুদ্ধে ক্যাম্পেইন করেছেন।

রিয়াদে কনসার্টে অংশ নেয়ার আগের দিন ১৯ জুন জেদ্দায় কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটিতে তিনি প্রখ্যাত মিসরীয় শিল্পী শেরিন আবদেল ওয়াহাবের সাথে অপর একটি অনুষ্ঠানে গাইবেন। এই কনসার্টও শুধু মাত্র মহিলাদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে।

এছাড়াও সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রদেশে ঈদ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে, যেখানে আতশবাজি, স্টান্ট শো এবং অপেরা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।


আরো সংবাদ