film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

এসপির রোষানলে পড়া ফেনীর ৪ সাংবাদিক আরো তিন মামলায় জামিন পেলেন

-

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার দায়ে প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকারের রোষানলের শিকার চার সাংবাদিককে আরো তিন মামলায় জামিন দিয়েছে আদালত। গতকাল সোমবার আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে জেলা ও দায়রা জজ সাঈদ আহমেদ তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।
আইনজীবীরা জানান, ফেনী মডেল থানা ও ছাগলনাইয়া থানায় পুলিশের দায়ের করা তিনটি মামলায় এজাহারে নাম না থাকলেও তৎকালীন পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নির্দেশে চার সাংবাদিককে অভিযোগপত্রে অন্তর্ভুক্ত করেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। এর আগে তারা ৭ অক্টোবর দু’টি ও ৩০ জুলাই ৮টি মামলায় জামিন লাভ করেন।

নুসরাত হত্যার রহস্য উদঘাটন ও সংশ্লিষ্টদের দায়িত্ব পালনে অবহেলা তুলে ধরতে সক্রিয় ভূমিকার কারণেই এসপি জাহাঙ্গীর অনৈতিকভাবে ‘খেদ মিটিয়েছেন’ পেশাদার সাংবাদিকদের ওপর।
জেলা পুলিশের বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, এসপি জাহাঙ্গীর ফেনী ছাড়ার আগে কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তাকে নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। এ সময় তিনি নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় তাকে নিয়ে গণমাধ্যমের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করে কয়েকজন সাংবাদিককে হেনস্থা করার পরিকল্পনা নেন। তার ঘনিষ্ঠ হিসেবে একজন ব্যাংকারও ওই ঘটনায় উসকানি দেন। সাংবাদিকদের নামসংবলিত একটি তালিকা সংশ্লিষ্ট থানার ওসিদের ধরিয়ে দেন এসপি। বিভিন্ন তদন্তাধীন মামলায় সেসব সাংবাদিকদের নাম চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ দেন। কয়েকজন ওসি কৌশলে এড়িয়ে গেলেও অন্যদের এসিআর আটকে রাখার ভয় দেখিয়ে আদালতে চার্জশিট দাখিলের জন্য চাপ দেন এসপি জাহাঙ্গীর সরকার। ১২ মে সন্ধ্যায় তার বদলি আদেশ আসার পর তিনি রাতে জরুরি ভিত্তিতে ওসিদের ডেকে চাপ প্রয়োগ করে কয়েকটি চার্জশিট তৈরি করান এবং তা দাখিলে বাধ্য করেন বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ওসি জানান। এমনকি বিষয়টি গোপন রাখতেও কোর্ট পরিদর্শকসহ অন্যদের নির্দেশ দেন তিনি।
জামিন পাওয়া চার সাংবাদিক হলেনÑ দৈনিক ফেনীর সময় ও সাপ্তাহিক আলোকিত ফেনী সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, দৈনিক অধিকার প্রতিনিধি ও অনলাইন পোর্টাল ফেনী রিপোর্ট সম্পাদক এস এম ইউসুফ আলী, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট সোলায়মান হাজারী ডালিম এবং দৈনিক সময়ের আলো প্রতিনিধি ও দৈনিক স্টার লাইনের স্টাফ রিপোর্টার মাঈন উদ্দিন পাটোয়ারী।

 


আরো সংবাদ