২৪ জানুয়ারি ২০২০

বাসসে অনিয়ম, দুর্নীতি বিএফইউজে-ডিইউজের উদ্বেগ

-

দৈনিক মানবজমিনে গত ৫ ডিসেম্বর ‘ক্র্যাচের বাসস’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থায় (বাসস) সংঘটিত অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা এবং সরকারি তহবিল তসরুপের কারণে সৃষ্ট চরম আর্থিক সঙ্কটে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে।
গতকাল রোববার বিএফইউজে সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ডিইউজে সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, ‘দীর্ঘ দিন ধরে বাসস কর্তৃপক্ষ গ্র্যাচুয়েটি ও প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা ভিন্ন খাতে খরচ করে ফৌজদারি অপরাধ করে চলেছেন। এতে অবসরপ্রাপ্তরা তাদের আইনগত পাওনা পাচ্ছেন না, পাওনা বঞ্চিত সাবেক বিশেষ সংবাদদাতা মুজিবুল হক ভূঁইয়া বিনা চিকিৎসায় মারা গেছেন। তার পরিবার চরম অর্থকষ্টে রয়েছে। অন্যান্য অবসরপ্রাপ্ত বাসস সাংবাদিক-কর্মচারীরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। কর্মরতরা দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে বিবিধ ভাতা-বিল পাচ্ছেন না। এ ব্যাপারে বাসস এমডি ও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পূর্ণ নির্বিকার। আমরা কর্তৃপক্ষের এই অবিমৃষ্যতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
বিএফইউজে ও ডিইউজে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে যে, বিগত ১৩ নভেম্বর ২০১৪ দৈনিক প্রথম আলোতে ‘ডুবতে বসেছে বাসস’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদকে আমলে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করলে এই চরম অর্থ সঙ্কট সৃষ্ট হতো না। আমরা দুর্নীতি দমন কমিশন ও তথ্য মন্ত্রণালয়ে দায়েরকৃত সরকারি তহবিল তসরুপের অভিযোগগুলোর দ্রুত তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি, প্রতিষ্ঠানের স্বচ্ছতা রক্ষা এবং অবসরপ্রাপ্ত সাংবাদিক-কর্মচারীদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ সহকারে সব পাওনা অবিলম্বে পরিশোধের জোর দাবি জানাচ্ছি। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ