২৬ জানুয়ারি ২০২০

কায়সার কামালকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

-

বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালকে প্রতারণার মামলায় রিমান্ড ও জামিন নামঞ্জুর করে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
গতকাল বৃহস্পতিবার ( ৫ ডিসেম্বর) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কলাবাগান থানার পুলিশের এসআই আওলাদ হোসেন আসামিকে আদালতে হাজির করে তিন দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ এবং আসামিপক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রুত বিশ্বাস পাঁচ দিনের মধ্যে যেকোনো এক দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।
গত বুধবার সন্ধ্যায় কায়সার কামালকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
রিমান্ড আবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, মামলার বাদি ব্যারিস্টার আতিকুর রহমানের রাজনীতির সুবাদে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির নেতাদের মাধ্যমে পরিচিত। খালেদা জিয়া ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে মামলায় আটকের কয়েকদিন আগে পুলিশ আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করলে আসামি বাদির বাসায় আশ্রয় চান। বাদি সরল বিশ্বাসে আশ্রয় দেন। সুযোগের অপব্যবহার করে এবং বাদির স্ত্রীর সরলতার সুযোগ নিয়ে প্রতারণার ফাঁদ ফেলে আসামি বাদির স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলেন।
রাষ্ট্রপক্ষে হেমায়েত উদ্দিন খান হিরণ রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, ‘যাদের মাধ্যমে আইনিব্যবস্থা শক্তিশালী হবে, অথচ তারাই যদি এ ধরনের ন্যক্কারজনক কাজ করেন। আসামি যে কাজ করেছেন মূর্খ মানুষেরও মানায় না। দায়িত্বশীল ব্যক্তি ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছেন। পুলিশ তার তিন দিনের রিমান্ড আবেদন করেছেন। রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করছি।’
আসামিপক্ষে রুহুল কুদ্দুস তালুকদার কাজল, গোলাম মোস্তফা খান, বোরহান উদ্দিন, মকবুল হোসেনসহ বেশকিছু আইনজীবী রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিনের প্রার্থনা করেন।
আসামির আইনজীবীরা আদলতেকে বলেন, ‘পুলিশ রিমান্ড আবেদন করেছে নাম-ঠিকানা যাচাই-বাছাই করার জন্য। কায়সার কামাল ঢাকা আইনজীবী সমিতি, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্য। এখানে রিমান্ডের কোনো যৌক্তিকতা নেই। আসামি ও বাদি আমাদের বন্ধু। সবাই আইনজীবী, ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমনটা হয়েছে। তাদের পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। সন্দেহের কারণে মামলা হয়েছে। পারিবারিকভাবে দুই দিনের মধ্যে মামলাটা আমরা শেষ করে ফেলব। মামলাটি জামিনযোগ্য ধারার। জামিন পাওয়ার অধিকার তার আছে। তা ছাড়া আসামি অসুস্থ। যেকোনো শর্তে আমরা আসামির জামিনের প্রার্থনা করছি।’ উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জেলগেটে আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন।


আরো সংবাদ

মিসর সফরে গেছেন বিমান বাহিনী প্রধান বাংলাদেশী হত্যা করে ভারত লাশ ফেরত দেয় না, অথচ নেপালে একই কাজ করে ক্ষমা চায় : মেনন খেলাধুলার মাধ্যমে যোগ্য নাগরিক গড়ে তুলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী এনআরসির প্রতিবাদে বিজেপি থেকে ৮০ মুসলিম নেতার পদত্যাগ বিসিএস ট্যাক্সেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল সম্পাদক কায়ছার মাসুদ বাউলের ইন্তেকাল টঙ্গীতে জাপা নেতার বাড়িতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ ইভিএম বুথে কেউ যেন জোর করে না ঢোকে : শাহ নেওয়াজ শত বাধা সত্ত্বেও শৃঙ্খলা না ভাঙার আহ্বান তাবিথের গাজীপুরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ সীমান্ত হত্যা: ঢাবি ক্যাম্পাসে নিহতদের গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত

সকল

কোলে তুলে দেড়ঘণ্টা লাগাতার উদ্দাম নাচ, হিজড়াদের 'অত্যাচারে' নবজাতকের মৃত্যু (২৪০৫৮)এক ধাক্কায় বিজেপি ছাড়লেন ৮০ মুসলিম নেতা (৯৬৫৬)পাইলটকে দেখে নেয়ার হুমকি বিমানযাত্রীর (৯০৮৩)ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের হামলায় ৩৪ মার্কিন সেনা গুরুতর আহত (৭৯০৭)করোনা ভাইরাসে কেউটে-কালাচে আতঙ্ক (৬০৪২)বাংলাদেশকে যেমন নিরাপত্তা দিচ্ছে পাকিস্তান (৫৫৪৮)“স্বেচ্ছায় ইরাক থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়া উচিত ‘আহাম্মক’ ট্রাম্পের” (৫১৬০)‘মনে হচ্ছে যেন পৃথিবীর শেষ দিন’, ভাইরাস আতঙ্কে চীন (৪৮১৩)মোদি-অমিত শাহ’র দিন শেষ, বাতিল হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (৪৬২৩)‘এসকে সিনহাকে মাজায় দড়ি লাগিয়ে আনা হবে’ (৪১৪৫)