১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

তাহিরপুরের সেই শিক্ষিকা ঝুমু অবশেষে বরখাস্ত

-

চলতি বছরের ১০ মাস ধরে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থেকেও তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা তানভী ঝুমুর বেতন ঠিকই তুলে নিচ্ছিলেন। এমপির স্ত্রী হওয়ায় এ বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা মুখ খুলতে নারাজ। আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন এমপি রতনের দ্বিতীয় স্ত্রী তানভী ঝুমুর।
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকা তানভী ঝুমুর সুনামগঞ্জ-১ (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা-মধ্যনগর) আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপির দ্বিতীয় স্ত্রী ও তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুরের মৃত আবুল কাশেমের মেয়ে সেই শিক্ষিকা তানভী ঝুমুর।
এনিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। অভিযোগটি তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফরের মহাপরিচালকের নির্দেশক্রমে তাকে বরখাস্ত করা হয়। গতকাল শুক্রবার বিকেলে সুনামগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা মো: জিল্লুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সহকারী শিক্ষক তানভী ঝুমুকে বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সাথে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এর আগে তানভী ঝুমুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জরুরি পত্র প্রেরণ করা হয়।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এনামুর রহীম বাবর জানান, উপজেলায় তানভী ঝুমুর নামে কোনো শিক্ষিকা আছেন বলে জানা নেই আমার। শিক্ষিকা তানভী ঝুমুরের বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থেকে বেতন তুলে নেয়ার বিষয়টি নিয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি তাহিরপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো: আকিকুর রেজা খান।
শিক্ষক হিসেবে তার অনুপস্থিতি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, আমি এই বিদ্যালয়ে এসেছি ছয় মাস হলো। এসে ওনাকে (তানভী ঝুমুর) পাইনি। তবে উপস্থিতির খাতা দেখে জানতে পারলাম, তানভী ঝুমুর গত ৭ জানুয়ারি এক দিনের ছুটি নিয়ে আর বিদ্যালয়ে আসেননি। তানভি ঝুমুর এখন কোথায় এমন প্রশ্নের উত্তর জানা নেই জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের কর্তাদের, তেমনি জানেন না সদর উপজেলার তেঘরিয়া ও তাহিরপুরের তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও।
প্রসঙ্গত তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুরের মৃত আবুল কাশেমের মেয়ে তানভী ঝুমুর। তিনি তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকা হিসেবে নিয়োগ পান। প্রাথমিক শিক্ষা দফতরে তদবির করে তিনি ডেপুটেশনে আসেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে এক দিনের ছুটি নেন তিনি।


আরো সংবাদ

দৃশ্যমান হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামের (২০৬৮৮)মাংস রান্নার গন্ধ পেয়ে বাঘের হানা, জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে জ্যান্ত খেল নারীকে (১৭৯১২)ব্রিটেনের প্রথম হিজাব পরিহিতা এমপি বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত আপসানা (১৪৪০২)চিকিৎসার নামে নারীর গোপনাঙ্গে হাত দিতেন ভারতীয় এই চিকিৎসক (১১৪৮১)ব্রিটেনে বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তানের যারা নির্বাচিত হলেন (১১৪১৬)নির্দেশনার অপেক্ষায় বিএনপির তৃণমূল (৯৫০১)দৈনিক সংগ্রাম কার্যালয়ে হামলা, সম্পাদক পুলিশ হেফাজতে (৯৪৪১)আরো এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কিনবে তুরস্ক; নয়া হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের (৭৯৬১)ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই আসে না : রাহুল (৭৮০৭)বিক্ষোভের আগুন আসামে এতটা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ছড়াবে, ভাবেননি অমিত শাহেরা (৭০৫৬)



hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik