২০ জানুয়ারি ২০২০

গাজীপুরে জেপি নেতার মেয়েকে হত্যার অভিযোগ স্বামী গ্রেফতার

-

গাজীপুরে জাতীয় পার্টির (জেপি) কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো: আবদুল হালিমের মেয়ে শোভা রাজমনি হোসনাকে (২০) তার স্বামী খুন করেছে বলে অভিযোগ করছেন পরিবারের সদস্যরা। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী রবিউল ইসলামকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে নিহতের স্বজনরা তাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ করলেও চিকিৎসকরা এ ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে ধারণা করছেন।
নিহতের বাবা আবদুল হালিম ও স্বজনরা জানান, গাজীপুরের ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ভর্তির জন্য ভাড়া বাসায় থেকে কোচিং করছিল শোভা। গত প্রায় দুই মাস আগে ১২ জুলাই মাগুরার জেলা সদরের শেহেলডাঙ্গা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে রবিউল ইসলামের (২৭) সাথে শোভার বিয়ে হয়। বিয়ের পর শোভা স্বামী রবিউলের সাথে ডুয়েটের পাশর্^বর্তী গাজীপুর শহরের উত্তর ভুরুলিয়া এলাকার মোশারফ হোসেনের ফ্ল্যাটে সাবলেটে বসবাস করত। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুক বাবদ ৩০ লাখ টাকা বাবার বাড়ি থেকে এনে দেয়ার জন্য রবিউল তার স্ত্রী শোভাকে মারধর করে আসছিল। মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টায় শোভা ফোন করে তার মা ও বাবাকে জানায়, যৌতুকের জন্য স্বামী তাকে বেদম মারধর করেছে। এ সময় আব্দুল হালিম তার মেয়েকে রাতটুকু সহ্য করে সকালে বাড়ি চলে আসতে বলেন। এর কিছুক্ষণ পর থেকে শোভার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। বুধবার ভোর ৪টার দিকে মেয়ের বাসার মালিকের স্ত্রী ফোন করে শোভা অসুস্থ বলে জানিয়ে শোভার বাবা-মাকে দ্রুত গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আসতে বলেন। দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতালে গিয়ে মেয়ের লাশ দেখতে পান শোভার বাবা। তার দাবি, রবিউল যৌতুকের টাকা না পেয়ে শোভাকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে।
ঘটনা ধামাচাপা দিতে গলায় দড়ি লাগিয়ে লাশ ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারের চেষ্টা চালায়। নিহত শোভার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।


আরো সংবাদ




krunker gebze evden eve nakliyat