২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদে ভেলায় সবজি চাষ

-

সারি সারি ভেলায় ভেসে বেড়াচ্ছে সবজির ক্ষেত। লালশাক, পাটশাক, লাউ, ঢেঁড়স, বরবটি, কলমির লকলকে ডগা দুলছে বাতাসে। কীটনাশক ছাড়াই চাষাবাদ করা হচ্ছে এসব ভাসমান সবজি ক্ষেত। ব্রহ্মপুত্র নদে সবজি চাষ করতে পেরে কৃষকরাও খুশি।
কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলায় হাতিয়া ইউনিয়নের নতুন অনন্তপুর ব্লকের কামারপাড়া গ্রামের ব্রহ্মপূত্র নদে ভাসমান বেডে ভেলায় সবজি ও মসলা চাষ এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। এ বিষয়ে কৃষক নুর আমিন জানান, কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় ভাসমান বেডে সবজি চাষ করছি। ইতোমধ্যে সবজিগুলো ডালপালা মেলে ছড়িয়ে পড়ছে। আশা করছি সবজি বিক্রি করে আর্থিক লাভবান হবো। ওই এলাকার আজিম আলী, রফিকুল ইসলাম, আনিসুর রহমান, আব্দুল মমিন, রোজিনা বেগমসহ ছয়জন কৃষক প্রত্যেকে চারটি করে মোট ২৪টি ভাসমান বেডে সবজি চাষ করছেন। তারা জানান, কচুরিপানাসহ জলজ আগাছা স্তÍূপীকৃত করে বেড তৈরি করে সবজি চাষ করা হচ্ছে। কোন প্রকার রাসায়নিক সার ছাড়াই সম্পূর্ণ জৈবিক উপায়ে উৎপাদিত এসব সবজি খেতেও খুব সুস্বাদু। আগামীতে ভাসমান বেডে সবজি চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করছেন তারা। আর সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করছেন ওই ব্লকের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা সায়িদুর রহমান। এ ছাড়াও উপজেলার দড়িকিশোর পুর, শুকদেব, তবকপুরসহ দুর্গাপুর ব্লকের ভাসমান বেডে লতাজাতীয় ও লতাবিহীন সবজি চাষ ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।
উপজেলা কৃষি অফিসার সাইফুল ইসলাম বলেন, ভাসমান বেডে সবজি ও মসলা চাষ গবেষণা, সম্প্রসারণ ও জনপ্রিয়করণ প্রকল্পের আওতায় কৃষি বিভাগের নিবিড় তত্ত্বাবধানে নদীতে ভাসমান সবজি চাষ করা হচ্ছে। এ ছাড়াও সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ধান চারাবীজ সরবরাহের জন্য ভাসমান বেডে আপদকালীন রোপা আমন বীজতলা তৈরি করা হয়েছে।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat Paykasa buy Instagram likes Paykwik Hesaplı Krediler Hızlı Krediler paykwik bozdurma tubidy