২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলসহ ৪ দাবিতে বিক্ষোভ ঢাবি শিক্ষার্থীদের

অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জনের ঘোষণা
-

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলসহ চার দাবিতে ফের আন্দোলনে নেমেছেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দেন তারা। ক্লাস বর্জনের বিষয়টি নয়া দিগন্তকে নিশ্চিত করেছেন আন্দোলনের সমন্বয়ক এবং বিশ^বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ। গত বুধবার সকালে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের (ঢাবি) সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে বিক্ষোভ কর্মসূচির মাধ্যমে আন্দোলন শুরু করেন বিশ^বিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ সময় আন্দোলনকারীরা আশপাশের রাস্তা অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এতে বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের তিন শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের সাথে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য রাখেন ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন ও সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।
গত রোববার বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালেয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এ সময় তারা বিশ^বিদ্যালয়ের প্রবেশমুখে শাহবাগ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসির চতুর্মুখী রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এ দিকে, প্রায় দুই ঘণ্টা শাহবাগ মোড় অবরোধের পরে ঢাবির রাজু ভাস্কর্যে এসে ক্লাস বর্জন কর্মসূচির ঘোষণার মাধ্যমে ওই দিনের আন্দোলন সমাপ্ত করেন তারা।
আন্দোলনকারীদের চার দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই অধিভুক্ত সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল করতে হবে, দুই মাসের মধ্যে সব পরীক্ষার ফল দিতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশনের আওতায় আনতে হবে এবং ক্যাম্পাসে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণ করতে হবে।
এ দিকে গতকাল দুপুরে শাহবাগে আন্দোলনকারীদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে বক্তব্য রাখেন ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন ও সদস্য তানভীর হাসান সৈকত। আখতার হোসেন বলেন, সাত কলেজ বাতিলের আন্দোলন আজকের নয় অনেক দিনের আন্দোলন এটি। যেখানে কিছু কিছু বিভাগে ঢাবি শিক্ষার্থীদের রেজাল্ট সাত মাসের মধ্যেও প্রকাশ করা সম্ভব হয় না সেখানে প্রশাসন কিভাবে অতিরিক্ত দু’লাখ শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নেয়। আমি আমার অবস্থান থেকে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল চাচ্ছি।
আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র ঢাবির ব্যবস্থাপনা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ বলেন, ‘সাত কলেজের কারণে আমরা প্রতিনিয়ত ভোগান্তির মুখে পড়ছি। শিক্ষকরা এমনিতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন, তার ওপর সাত কলেজের এত পরিমাণ শিক্ষার্থী তারা কিভাবে সামলাবেন?
উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ে গত সোমবার বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনকে তাদের দাবি মানার জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম প্রদান করে কিন্তু প্রশাসন তাদের দাবি আদায়ে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় গতকাল থেকে তারা ফের আন্দোলন শুরু করেন। এর আগেও ২০১৮ সালে সাত কলেজ বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা।


আরো সংবাদ

রাবিতে ডাইনিংয়ের খাবারে বড়শি ও কেঁচো, শিক্ষার্থীদের ভাঙচুর জিম্বাবুয়েকে ১৫৬ রানের লক্ষ্য দিলো আফগানিস্তান বিশেষ অভিযানে একসাথে ২৪ রোহিঙ্গা গ্রেফতার কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের সভাপতি ও বায়রার সহসভাপতি ফিরোজ র‌্যাব হেফাজতে সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে কিশোর গ্রেফতার জয়ের ধারা অব্যাহত রাখাটা গুরুত্বপূর্ণ : শফিউল জলবায়ুর পরিবর্তন ঠেকাতে ঢাকার রাজপথেও শিশুরা বিদায়ী ম্যাচে জার্সিতে নেই ‘মাসাকাদজা’ আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজির হুমকিতে খেলতে আসছে না শ্রীলঙ্কার প্লেয়াররা : আফ্রিদি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বরগুনায় যুবদলের মানববন্ধন জবিতে মানবিক শাখার ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন, শনিবার বিজ্ঞানের

সকল




gebze evden eve nakliyat Paykasa buy Instagram likes Paykwik Hesaplı Krediler Hızlı Krediler paykwik bozdurma tubidy