২১ আগস্ট ২০১৯

পণ্ড হলো ডাকসুর নারী সচেতনতা বিষয়ক কর্মশালা

-

অসহযোগিতার কারণে পণ্ড হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে নারী সচেতনতা বিষয়ক কর্মশালা ‘অ্যাওয়ারনেস ক্যাম্পেইন অন সাইবার সেফটি অ্যান্ড ৯৯৯’। এর ফলে ডাকসুর বাজেট থেকে আসা ৪০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। সপ্তাহব্যাপী এ কর্মশালা গতকাল মঙ্গলবার শুরু হয়ে ২২ জুলাই পর্যন্ত চলার কথা। তবে প্রথম দিনেই ডাকসুর উদ্যোগে নেয়া নারী সচেতনতামূলক এ গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচিটি পণ্ড হয়। এর জন্য ডাকসুর অন্য নেতাদের দায়ী করেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ থেকে নির্বাচিত সমাজসেবা সম্পাদক আখতার। পাশাপাশি হল ও বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনেরও অসহযোগিতা ছিল বলেও অভিযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীবান্ধব কর্মসূচি পালন করলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সমাজসেবা সম্পাদকের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কায় একটি মহল এ কর্মশালা নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ।
হল সূত্র জানায়, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী মঙ্গলবার বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হলে সাইবার সচেতনতা কর্মসূচি ছিল। এ নিয়ে নিয়ম অনুযায়ী হল সংসদ ও হল প্রশাসনের সাথে কয়েক দফায় আলোচনাও করেন সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন। প্রোগ্রামে হল প্রাধ্যক্ষ মাহবুবা নাসরীনের উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কর্মসূচি উপলক্ষে প্রচার প্রচারণা, ব্যানার, নাশতা সব কিছুই সম্পন্ন ছিল।
এ বিষয়ে কুয়েত মৈত্রী হলের প্রাধ্যক্ষ মাহবুবা নাসরীন বলেন, তাদের প্রোগ্রাম করার বিষয়ে মৌখিক অনুমতি দিয়েছিলাম। কিন্তু আমার পারিবারিক কাজ থাকায় আমি থাকব না বলে জানাই এবং সবার সাথে আলোচনা করে অনুষ্ঠান করতে বলি। কিন্তু তারা সমঝোতায় আসতে পারেনি তাই মনে হয় প্রোগ্রাম হয়নি।
কুয়েত মৈত্রী হল ছাত্রলীগের সভাপতি ও ডাকসুর সদস্য ফরিদা পারভিন বলেন, আখতার আমাকে প্রোগ্রামে থাকতে বলেছিল আমি হলে ছিলাম। কিন্তু কেন প্রোগ্রাম করতে পারেনি তা জানি না।
এ বিষয়ে জানতে ভিসি অধ্যাপক মো: আখতারুজ্জামানকে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে পাওয়া যায়নি।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet