২২ জুলাই ২০১৯

ডেঙ্গু প্রতিরোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে : চসিক মেয়র

-

চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন বলেন, রাজধানীতে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব ঘটছে আশংকা জনক হারে। তবে এই ডেঙ্গুর আগ্রাসান চট্টগ্রাম নগরে যে হবে না এর কোনো নিশ্চয়তা নেই। তাই সময় থাকতে আমাদেরকে ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার চসিক বিভাগীয় ও শাখা প্রধানদের বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।
বৈঠকে ডেঙ্গু প্রসঙ্গ ছাড়াও নগর পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা, আলোকায়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও নগর অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং দেশব্যাপি ডেঙ্গুর প্রকোপ সম্পর্কিত বিষয়ে আলোচনা হয়।
মেয়র বলেন, এক্ষুনি এডিস মশার বংশবৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত সময়। ভারী বর্ষণ কিংবা থেমে থেমে বৃষ্টি হওয়ার কারণে বাড়ীর আশপাশ, ফুলের টব, আবর্জনা ফেলার পাত্র, প্লাষ্টিকের পাত্র, পরিত্যক্ত টায়ার, প্লাস্টিকের ড্রাম,মাটির পাত্র, বালতি, টিনের কৌটা, ডাবের খোসা, নারিকেলের মালা, ব্যাটারী শেল, পলিথিন, চিপসের প্যাকেট এবং নালা-নর্দমায় জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে এডিস মশার প্রজননের স্থান। এক্ষেত্রে জনসচেতন হতে হবে।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়োজিত চিকিৎসকদেরকে জনমনে সচেতনতা সৃষ্টির কাজে নিয়োজিত হওয়ারও আহবান জানান মেয়র।
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চসিক প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দোহা, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্ণেল মহিউদ্দিন আহমদ, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার সেলিম আকতার চৌধুরী, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার মোহাম্মদ আলী, মেমন মাতৃসদন হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডাক্তার প্রীতি বড়ুয়া, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মনিরুল হুদা, কামরুল ইসলাম, সুদীপ বসাক, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শফিকুল মান্নান যীশু ও অতিরিক্ত প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম চৌধুরী প্রমুখ।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi