১৫ অক্টোবর ২০১৯

ভাড়া পরিশোধ না করায় দোকানির ছেলেকে হত্যা

-

টঙ্গীতে দোকানের ভাড়া পরিশোধ না করায় দোকানির ছেলে সাইফুর রহমান সাইফকে হত্যা করা হয়েছে। অভিযোগে হারুন আর রশিদ (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র্যাব-১। গত রোববার মধ্য রাতে টঙ্গী পূর্ব ঘাপরিয়া মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
নিহতের বাবা আব্দুল কাইয়ুম জানান, তিনি বেশ কিছু দিন আগে স্থানীয় হারুন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা অগ্রিম ও মাসিক ১৫ হাজার টাকা ভাড়ায় একটি ওয়ার্কশপ ভাড়া নেন। গত মে মাসের ভাড়া পরিশোধ না করায় দোকানের মালিক হারুন টাকার জন্য তাগাদা দিলেও তা পরিশোধে ব্যর্থ হন তিনি। গত শনিবার সকালে সাইফকে দোকানে বসিয়ে তিনি ভাড়ার টাকার বন্দোবস্ত করতে যান। দুপুর ১২টায় দোকানের মালিক হারুন তার ৫ থেকে ৬ জন সহযোগী নিয়ে ভাড়ার টাকা নিতে আসেন। এ সময় তারা টাকা না পেয়ে দোকানির ছেলেকে মারধর করে এবং লেদ মেশিনের ওপর ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে হারুন ও তার সঙ্গীরা সাটার বন্ধ করে চলে যান। পরে বন্ধ দোকানের ভেতর চলন্ত লেদ মেশিনের শব্দ পেয়ে পাশের দোকান ও স্থানীয় লোকজন ভেতরে প্রবেশ করলে সাইফকে লেদ মেশিনের সাথে পেঁচানো অবস্থায় দেখতে পায়। গুরুতর অবস্থায় সাইফকে তারা টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
র্যাব জানায়, এ ঘটনায় টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি হত্যা মামলা করেন ভুক্তভোগী পরিবার। পরে পূর্ব ঘাপরিয়া মাদরাসা থেকে হারুনকে গ্রেফতার করে র্যাব।
র্যাব-১ এর এএসপি কামরুজ্জামান বলেন, লেদ মেশিনে পেঁচিয়ে সাইফ মরা যায়। হারুন ‘মুন সান প্রোপারটিজ’ নামে একটি ভবন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী। পাশাপাশি মাছিমপুর এলাকায় ভাড়া দেয়া তার বেশ কয়েকটি দোকান আছে। এসব দোকানের একটিতে সাইফের বাবা দীর্ঘ দিন ধরে ওয়ার্কশপ পরিচালনা করে আসছিলেন।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum