২৬ জুন ২০১৯

জাতীয় কবি হিসেবে নজরুলের সাংবিধানিক স্বীকৃতি দাবি ন্যাপের

-

কাজী নজরুল ইসলামকে ‘জাতীয় কবি’র সাংবিধানিক স্বীকৃতি না দিয়ে বাংলাদেশের শাসকগোষ্ঠী জাতির সাথে প্রতারণা করছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া। তিনি বলেন, তার অসামান্য ও ব্যতিক্রম সৃষ্টি ধারা ও উজ্জ্বল কর্মপ্রবাহ বাংলা সাহিত্যকে যেমন দিয়েছে সমৃদ্ধ সংযোজন তেমনি বাঙালি জাতিকে দিয়েছে গভীর প্রণোদনা শক্তি। নজরুল চেতনা ও তার দর্শন দিয়েছে নব নব পথের সন্ধান। জাতীয় কবি হিসেবে সাংবিধানিক স্বীকৃতি আজ সময়ের দাবি। স্বাধীনতার অর্ধশতাব্দি পূরণের প্রাক্কালে সরকার জাতীয় কবিকে সাংবিধানিক স্বীকৃতি প্রদান করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।
গতকাল শনিবার নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ ঢাকা মহানগর আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। গোলাম মোস্তফা বলেন, দ্রোহ যেমন দিয়েছে তাকে বিদ্রোহীর অপরাজেয় মুকুট, তেমনি বাংলা তথা ভারতবাসীর অন্তরস্থিত চেতনায় দারুণ আলোড়ন সৃষ্টি করে, যা উদ্দীপনার উৎস রূপে প্রতিভাত হয়। কাজী নজরুল সাম্রাজ্যবাদের ঔপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন। তার রচনা ও তার সৃষ্টিশীল কর্মতৎপরতার মধ্যে বিদেশী শক্তির শোষণ দুঃশাসন থেকে মুক্তিই ছিল প্রধান লক্ষ্য।
সভায় সভাপতিত্ব করেন ন্যাপ ঢাকা মহানগর সভাপতি মো: শহীদুননবী ডাবলু ও সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম।


আরো সংবাদ