২৬ জুন ২০১৯

মুসলিম সাংস্কৃতিক আন্দোলনকে জোরদার করতে হবে : অধ্যাপক মুজাহিদুল ইসলাম

-

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইস্যুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ মুজাহিদুল ইসলাম বলেছেন, আজকে সামাজিক অবক্ষয় চরম আকার ধারণ করেছে। এ অবক্ষয় থেকে মুক্তি পেতে একটি সামাজিক পরিবর্তন দরকার। পরিবর্তনের জন্য মুসলিম সাংস্কৃতিক আন্দোলনকে জোরদার করতে হবে। মুসলমানদের একটি স্বকীয় ও সমৃদ্ধ সংস্কৃতি রয়েছে। নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, তেলাওয়াত, তাহাজ্জুদ, ঈদসহ জীবনের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে এমনকি মৃত্যুর পর জানাজা ও দাফনেও মুসলমানদের স্বকীয় ও সুন্দর সংস্কৃতি তথা বিধিবিধান রয়েছে। ইসলামী সংস্কৃতি হচ্ছে পঙ্কিলতা মুক্ত সুস্থ সংস্কৃতি। ইসলামী উৎসবের মধ্যে রয়েছে পবিত্র আনন্দ। জাতীয় সাংস্কৃতিক ফোরাম-জাসাফ আয়োজিত রমজান সংলাপে তিনি এ কথা বলেন।
গতকাল রোববার বিকেলে বিজয়নগরস্থ মজলিস মিলনায়তনে জাতীয় সাংস্কৃতিক ফোরামের (জাসাফ) নির্বাহী সভাপতি ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কাজী আরিফুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সংলাপে অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব ও জাতীয় সংস্কৃতিক ফোরামের উপদেষ্টা শেখ গোলাম আসগর, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ক্যালিগ্রাফি শিল্পী আরিফুর মান, আপডেট২৪ সম্পাদক অধ্যাপক মো: আবদুল জলিল, তাওহিদুল ইসলাম তুহিন, অ্যাডভোকেট মাওলানা শায়খুল ইসলাম, মুহাম্মদ শাহিন, কবি ও ছড়াকার মঈন মুরসালিন, অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, আবদুল জব্বার, দাবানল শিল্পীগোষ্ঠীর প্রধান পরিচালক মুফতি আনিস আনসারী, মাওলানা কাওসার আহমদ সোহাইল, শিল্পী দেলাওয়ার হোসাইন, এ বি এম শহীদুল ইসলাম, মুহাম্মদ ইমরান হোসাইন, আবদুর রহমীন মঞ্জু, মুহাম্মদ মিল আহমদ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।

 


আরো সংবাদ