২৪ মে ২০১৯

যারা দুর্নীতিমুক্ত থাকতে ‘কমফোর্ট ফিল করবেন তারাই আমার সাথে কাজ করবেন : ভূমিমন্ত্রী

-

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, ভূমি মন্ত্রণালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আমার সাথে দুর্নীতিমুক্ত ভূমি ব্যবস্থাপনা গড়তে সহমত থাকতে হবে। যারা এতে ‘কমর্ফোট ফিল’ করবেন তাদের ঠিক করে ফেলা উচিত তারা কি করবেন। যারা অন্যায় করবেন তারা কেউই রেহাই পাবেন না।
ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতরের উদ্যোগে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে অবস্থিত অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ের প্রশিক্ষণ হলে অনুষ্ঠিত ভূমি জরিপ ও রেকর্ড ব্যবস্থাপনায় অধিকতর গতিশীলতা আনয়নে ‘ভূমি জরিপ কার্যক্রমের চ্যালেঞ্জগুলো ও উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ায় ৭ ধারা নোটিশ জারির পর প্রায়ই দেখা যায় মানুষকে হয়রানির উদ্দেশ্যে মাঠপর্যায়ে কোনো কোনো অসাধু চক্র যোগসাজশ করে আরেকজনকে দিয়ে টাইটেল মামলা করায়। ৩ এবং ৪ ধারার নোটিশ জারি করার পরই কেবল শেষবারের মতো ৭ ধারার নোটিশ জারি করা হয়। জনভোগান্তি কমানোর লক্ষ্যে, ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে ৭ ধারার নোটিশ জারির পর আর কোনো অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হবে নাÑ এ মর্মে আমরা শিগগিরই পরিপত্র জারি করতে যাচ্ছি।
মন্ত্রী ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মচারীদের ধর্মীয় অনুশাসনের কথা স্মরণ করে দিয়ে বলেন, আমাদের কাজ আমাদের ঈমানি দায়িত্ব। দেশের মানুষ যেন ভালোভাবে সেবা পেতে পারে এভাবে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। মন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কঠোরভাবে নির্দেশ প্রদান করেন যেন তাদের দ্বারা মানুষের কোনো ধরনের হয়রানি না হয়। সবাইকে নিয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
ভূমি সচিব মো: মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী বলেন, সরকারি কর্মচারীদের জনগণের সেবায় আমাদেরকে নিজেকে উৎসর্গ করতে হবে এবং জাতীয় স্বার্থকে সবকিছুর ঊর্ধ্বে স্থান দিতে হবে। আমাদেরকে জনগণের খাদেম বলে বিবেচনা করতে হবে। সুতরাং আমাদের দায়বদ্ধতা রয়েছে জনগণের কাছে। আমাদের দ্বারা যেন জনগণের ভোগান্তি না হয় সেভাবেই কাজ করে যেতে হবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতরের উপপরিচালক (প্রশাসন) আলীম আখতার খান। বক্তব্য রাখেন ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক মো: মাহফুজুর রহমান, সাবেক পরিচালক ফায়েকুজ্জামান চৌধুরী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক নূরুল ইসলাম নাজেম।
কর্মশালায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মুনশী শাহাবুদ্দীন আহমেদ, ভূমি আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান মো: আবদুল হান্নান।


আরো সংবাদ

Instagram Web Viewer
agario agario - agario