১৫ নভেম্বর ২০১৯

প্রবীণ গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য সম্মানী ভাতাসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নেবে সরকার : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

-

সমাজকল্যাণ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো: শরীফ আহমেদ এমপি বলেছেন, সরকার প্রবীণ নাগরিকদের পাশাপাশি প্রবীণ গণমাধ্যম কর্মীদের কল্যাণে সম্মানী ভাতাসহ বিভিন্ন সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবে।
তিনি বলেন, প্রবীণ নাগরিকদের মেধা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠন করতে হবে।
গতকাল প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) সেমিনার হলে ‘বাংলাদেশের প্রবীণ নাগরিক ও সাংবাদিক সমাজের বর্তমান চিত্র : আমাদের করণীয় শীর্ষক’ এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ সাংবাদিক অধিকার ফোরামÑ বিজেআরএফ এবং পিআইবি-এর সহায়তায় প্রবীণ বন্ধু ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এই সেমিনারের আয়োজন করে।
বিজেআরএফ সভাপতি আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে ও বিজেআরএফ সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমানের পরিচালনায় সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রবীণ বন্ধু ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ডা: মহসীন কবির লিমন।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি থেকে বক্তব্য রাখেন সমাজকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ, প্রবীণ হিতৈষী সঙ্ঘের মহাসচিব অধ্যাপক ড. এ এস এম আতিকুর রহমান, পিআইবির ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক মীর মো: নজরুল ইসলাম, প্রবীণ সাংবাদিক নেতা ও ডিইউজের সাবেক সভাপতি কাজী রফিক, ডিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ, অর্থনৈতিক বিষয়ক প্রবীণ সাংবাদিক নেতা মনোয়ার হোসেন, ডিইউজে সাংবাদিক পরিবার সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আল মামুন, মাইটিভির বার্তা প্রধান খান মোহাম্মদ সালেক প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে শরীফ আহমেদ বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে প্রবীণ নাগরিকদের জন্য বিশেষ বরাদ্দ বাড়ানো হচ্ছে এবং সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় প্রবীণদের কল্যাণে কর্মসূচি নেয়া হচ্ছে।
সচিব জুয়েনা আজিজ বলেন, প্রবীণ জনগোষ্ঠীর অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে পারলে দেশ অনেক দূর এগিয়ে যাবে। পিতা-মাতার ভরণপোষণ আইনে যথাযথ কার্যকর করার জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।
হিতৈষী সঙ্ঘের মহাসচিব, অধ্যাপক ড. এ এস এম আতিকুর রহমান প্রবীণ নাগরিকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর পদক্ষেপ নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ২০৫০ সালে শিশুদের চেয়ে প্রবীণ নাগরিকের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়ে যাবে। তাই প্রবীণদের জন্য এখনই কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।


আরো সংবাদ

আগুন নেভাতে সাহসী ভূমিকা রাখা ১৬ ব্যক্তিকে সংবর্ধনা দিলো হোটেল কস্তুরি ঘুষ সন্ত্রাস মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বাংলাদেশ-নেপাল যোগাযোগ ও বাণিজ্য বাড়ানোর পরামর্শ রাষ্ট্রপতির মেহেদির রঙ মুছতে না মুছতেই... সর্বদা আল্লাহর জিকিরে থাকতে হবে : আল্লামা শফী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ, তাকে জামিনে মুক্তি দিন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ তদন্তের আদেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত ৩০ বছর পর সগিরা হত্যার রহস্য উদঘাটন : চার আসামি গ্রেফতার ট্রেন দুর্ঘটনার পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র থাকলে সরকার খতিয়ে দেখবে : প্রধানমন্ত্রী অর্থমন্ত্রীর পরিবারের আয়কর ৭ কোটি ৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা না’গঞ্জে আদালত চত্বরে বাদি ও আসামিপক্ষের মারামারি

সকল